পুজোয় ভিন্ন ধরনের স্বাদ নিতে বানিয়ে ফেলুন মুসুর ডালের দম পোলাও

Polao

Mysepik Webdesk: পোলাও ছোট থেকে বড় কম বেশি সকলেরই পছন্দের। তাই পুজোর সময়ে এর আলাদা রকমের স্বাদ নিতে বাড়িতেই বানিয়ে নিন মুসুর ডালের পোলাও। নামটা শুনে খুব অবাক লাগছে, অবাক হওয়ার কিছুই নেই একটু অন্যরকম হলেও যথেষ্ট সুস্বাদু এই মুসুর ডাল পোলাও। পুজোতে যেকোনও একদিন বানিয়ে ফেলুন এই সুস্বাদু পদটি। আসুন জেনে নেই কীভাবে তৈরি করবেন মুসুর ডালের দম পোলাও রেসিপিটি।

আরও পড়ুন: পুজোয় বাইরের খাবার না খেতে চাইলে বাড়িতে বানান কাবাবি ডিম-আলুর চপ

উপকরণ: দেরাদুন চাল (৩০০ গ্রাম), মুসুর ডাল (১৫০ গ্রাম), নারকেল দুধ (২ কাপ), চিনি (১ চা চামচ), পেঁয়াজ কুচি রান্না করার জন্য (৩টি), বেরেস্তার জন্য পেঁয়াজ কুচি (১ কাপ), টম্যাটো (২টি), আদা বাটা (৩ টেবিল চামচ), হলুদ গুঁড়ো (১ চা চামচ), তেজ পাতা (২টি), শাহী জিরা (১ চা চামচ), শুকনো লঙ্কা (২টি), লবঙ্গ (৪টি), বড় এলাচ (৪টি), পরিমাণমতো দেশি ঘী ও লবণ স্বাদমতো।

আরও পড়ুন: পুজোর বিকেলে চায়ের সঙ্গে মুচমুচে নুডলস পাকোড়া

প্রণালী: প্রথমে চাল ও ডাল দুটি আলাদা পাত্রে ১৫ মিনিট ভিজিয়ে জল ঝড়িয়ে রাখতে হবে।

এবারে একটি ননস্টিক প্যান গরম করে তাতে ঘী দিয়ে পেঁয়াজ কুচি বাদামি করে ভেজে তুলে রাখতে হবে। প্যানে আরও ঘী দিয়ে একে একে তেজ পাতা, শাহী জিরা, শুকনো লঙ্কা, লবঙ্গ, বড় এলাচের ফোড়ন দিয়ে তাতে টম্যাটো, পেঁয়াজ কুচি, আদা বাটা, হলুদ গুঁড়ো ও লবণ যোগ করতে হবে। এবারে জল ঝড়িয়ে রাখা ডাল দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে ৭-৮ মিনিট রান্না হতে দিতে হবে।

নারকেল দুধ ও গরম জল দিয়ে মিনিট পাঁচেক রান্না হতে দিতে হবে। রান্না শুরু করার আগে জল গরম করে রাখতে হবে।

এরপর চাল, চিনি, লবণ ও ভেজে রাখা পেঁয়াজ দিয়ে আঁচ কমিয়ে ঢাকা দিয়ে রাখতে হবে। মাঝে মাঝে হালকা ভাবে নেড়ে প্রয়োজনে গরম জল দিয়ে রান্না করতে হবে।

রান্না হয়ে গেলে আঁচ থেকে নামানোর আগে উপর থেকে ঘী ছড়িয়ে দিতে হবে। পুজোর সময়ে দুপুরে কিংবা রাত্রে যখন খুশি গরম গরম পরিবেশন করুন মুসুর ডালের দম পোলাও।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *