‘ভোটের সময় মন্ডা-মিঠাই আর ভোট মিটলে কাঁচকলা’, পুরুলিয়ার জনসভায় বিজেপিকে আক্রমণ মমতার

Mysepik Webdesk: সামনে একুশের ভোট। আর তার আগেই শুরু হয়ে গিয়েছে নির্বাচনী প্রচার। এ দিন পুরুলিয়ায় জনসভা ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। বক্তৃতা দেওয়ার সময় তিনি কার্যত তুলোধোনা করেন বিজেপিকে। বিজেপিকে কটাক্ষ করে এ দিন তিনি বলেন, “নির্বাচন এলে বঙ্গালের কথা মনে পড়ে? নির্বাচনের সময় মন্ডা-মিঠাই খাওয়াবে, আর ভোট মিটলে কাঁচকলা খাওয়াবে।” পুরুলিয়ার প্রাচীন সংস্কৃতি টেনে েকে তিনি বলেন, “পুরুলিয়া প্রথম ভাষা আন্দোলনের সাক্ষী। পুরুলিয়া কখনও বহিরাগতদের কাছে মাথা নত করেনি। এখানে বিজেপি আসলে পুরুলিয়া থাকবে না, রূপসী বাংলাও থাকবে না। মাওবাদীদের থেকে বিজেপি আরও ভয়ঙ্কর।”

আরও পড়ুন: রাজ্যে করোনার টিকা নেওয়ার পরেই অসুস্থ ১৪ জন, হাসপাতালে ভর্তি ২

তিনি পুরুলিয়ার মঞ্চ থেকে আরও বলেন, “ফেক ভিডিও ছড়াচ্ছে বিজেপি। ওদের একদম বিশ্বাস করবেন না। লোকসভা নির্বাচনে মিথ্যা কথা বলে ভোট নিয়ে পালিয়ে গেল। যখন নির্বাচনের সময় বিজেপি নেতারা আসবেন, একদম তাড়িয়ে দেবেন।” তিনি আরও বলেন, “আমি আপনাদের ঘরের মেয়ের মতোই, কারও বোন, কারও দিদি, কারও কাছে আন্টি। আমি আপনাদের পরিবারেরই একজন। যাঁরা দল ছেড়ে চলে যাচ্ছেন, বুঝবেন আপদ বিদেয় হয়েছে। তিন ধরনের লোক রয়েছে রাজনীতিতে। লোভী, ভোগী আর ত্যাগী।”

আরও পড়ুন: লড়বেন নন্দীগ্রাম থেকেই, ভোটের আগেই মাস্টারস্ট্রোক মমতার

তিনি বিজেপিকে কটাক্ষ করে বলেন, “বিজেপি ভুল বুঝিয়ে ভোট নিয়ে চলে গিয়েছেন। রেশন দেয়নি, জল দেননি। নির্বাচনের আগে মণ্ডামিঠাই দেখিয়ে যাবে। নির্বাচনের পরে কাঁচকলা দেখাবে। ঝাড়খণ্ডে বিদায় নিয়েছে। এখান থেকেও বিদায় নেবে।” সংবাদমাধ্যমের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, “বিজেপি বাংলায় সংবাদমাধ্যমকে কাজে লাগাচ্ছে। সাংবাদিকদের দোষ দেবো না। সত্যকে মিথ্যে বলতে বাধ্য করছে ওরা।” বিজেপির সার্ভে নিয়ে তিনি বলেন, “একটা সার্ভে বলছে খুব বেশি হলে ৫০ টা সিট পাবে বিজেপি। আবার অন্য একটি গণমাধ্যম বলছে ৯২টা আসন পাবে ওরা। আসলে বিজেপির নেতারা ভয় দেখাচ্ছে।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *