‘ঘরে ফেরা’ মুকুলকে তৃণমূলে বড়োসড়ো পদ দিতে চলেছেন মমতা

Mysepik Webdesk: গত ১১ জুন গেরুয়া শিবির ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেছেন মুকুল রায়। তাঁর এই প্রত্যাবর্তনের ঘটনাকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ‘ঘরের ছেলের ঘরে ফেরা’ আখ্যা দিয়েছেন। এবার সেই মুকুল রায়ের হাত ধরে আগামী দিনে বিজেপিতে যে বড়োসড়ো ভাঙ্গন ধরতে চলেছে, তা সহজেই আন্দাজ করা যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই মুকুল রায় তাঁর বেশ কয়েকজন ঘনিষ্ট বিজেপি নেতার সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন। সূত্রের খবর, তাঁদের মধ্যে বেশিরভাগই খুব শীঘ্রই গেরুয়া শিবির ছেড়ে তৃণমূলে আসতে চলেছেন। এর মধ্যেই জানা গিয়েছে, মুকুল রায়কে তৃণমূলে বেশ বড়োসড়ো পদ দিতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

আরও পড়ুন: ১৬ জুন পরিবহণকর্মীদের বাস ডিপোতে উপস্থিত থাকতে নির্দেশ নবান্নের

সূত্রের খবর, মুকুল রায়কে সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি করতে পারে তৃণমূল। প্রসঙ্গত, বিজেপিতেও তিনি ওই একই পদে ছিলেন। ২০১৭ সালে মুকুল রায় যখন তৃণমূল ছাড়েন, তখন তিনি তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তাঁর চলে যাওয়ার পর ওই পদে এতদিন পর্যন্ত কাউকেই বসানো হয়নি। তবে সম্প্রতি দলের সাধারণ বৈঠকে যুব তৃণমূল নেতার পদ থেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে উঠিয়ে নিয়ে এসে সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের পদে বসানো হয়। এর পরেই অসুস্থ মুকুল রায়ের স্ত্রী-কে দেখতে হাসপাতালে যান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই ঘটনার পর থেকেই মুকুলের তৃণমূলে ফেরার জল্পনা জোরালো হয়।

আরও পড়ুন: রাজীবকে তৃণমূলে ফেরানোর আপত্তি, বিক্ষোভ-মিছিল ডোমজুড়ে

তৃণমূলে যোগদান করার পরেই কর্মীদের মনে প্রশ্ন ছিল, কোন পদাধিকার দেওয়া হতে চলেছে মুকুল রায়কে। তবে তাঁকে যে দলের গুরুত্বপূর্ণ কোনও পদে বসানো হতে চলেছে, তা মুকুল রায়ের তৃণমূলে যোগদান করার দিনেই স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত, এর আগে তৃণমূলে থাকাকালীন মমতার হাত ধরে দীর্ঘদিন রাজ্যসভার সাংসদ ছিলেন মুকুল। তাঁর রাজনৈতিক অভিজ্ঞতাও অনেক বেশি। তাছাড়া পশ্চিমবঙ্গের একাধিক প্রতিবেশী রাজ্যে, বিশেষ করে ত্রিপুরায় মুকুল রায়ের যথেষ্ট প্রভাব রয়েছে। সেক্ষেত্রে বাংলায় গন্ডি ছাড়িয়ে ভিনরাজ্যে তৃণমূলের আধিপত্য বিস্তার করার কাজে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে তাঁর বহুদিনের রাজনৈতিক সঙ্গী মুকুলকে কাজে লাগাতে চাইবেন, সে কথা বলাই বাহুল্য। অর্থাৎ আগামী দিনে মুকুল রায়কে যে তৃণমূলের কোনও বড়োসড়ো পদে দেখা যেতে পারে, সেকথা বলার আর অপেক্ষা রাখে না।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *