দেশে ফিরে ভালোবাসার জনস্রোতে ভাসলেন মেসিরা

Mysepik Webdesk: বিজয়ী আর্জেন্টিনা দলকে ঘিরে সেই দেশে এখন ‘এন উনিওন ই লিবের্তাদ’। অর্থাৎ, মেসিদের নিয়ে ঐক্যের মন্ত্রে এখন আন্দোলিত গোটা আর্জেন্টিনা। ২৮ বছর পর কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আর্জেন্টিনা। ১৯৯৩ সালের পর লাতিন আমেরিকার এই টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছেন লিও মেসিরা। ব্রাজিলে গিয়ে ব্রাজিলকে হারিয়ে ফাইনাল জেতায় আনন্দের বাঁধ যেন ভাঙছে না সমর্থকদের। আর্জেন্টিনা ফুটবল প্রশাসনও ইতিমধ্যেই অভিনন্দন জানিয়েছে কোপা চ্যাম্পিয়নদের। গোটা দেশ মেসি, ডি মারিয়াদের নিয়ে বিজয়োল্লাসে মেতে উঠেছে। সমর্থকরা অপেক্ষা করছিলেন কখন তাদের নায়করা দেশে ফিরবেন এবং তাঁরা বরণ করে নেবেন তাঁদের গর্বের ফুটবলারদের। সেই দিন এসে হাজির হল।

আরও পড়ুন: ইতালির পুনর্জন্ম, আশাভঙ্গ ইংল্যান্ডের

লাতিল আমেরিকা জয়ের ট্রফি নিয়ে আর্জেন্টিনা দল তাদের দেশের রাজধানী বুয়োনেস আইরেসে পৌঁছল, সেই সময় দেখা গেল বিমানবন্দরের সামনে কাতারে কাতারে মানুষ তাদের জন্য অপেক্ষা করছেন। তাঁদের কারোর হাতে দেশের জাতীয় পতাকা। কেউ কেউ জয়ধ্বনি দিচ্ছেন। কেউবা গাইছেন ‘হিমনো ন্যাসিওলান আর্জেন্টিনা’― তাঁদের জাতীয় সংগীত। বিপুল জনজোয়ার বরণ করে নেয় দক্ষিণ আমেরিকার সেরা আর্জেন্টিনাকে।

আরও পড়ুন: ক্রুশ্চেভ ভার্সেস টিটো: প্রথম ইউরো কাপ ফাইনাল ছিল ‘কমিউনিস্টদের লড়াই’

তবে এরই মধ্যে এক নয়নাভিরাম দৃশ্য দেখা গেল। ‘লা আলবিসেলেস্তে’ (সাদা-আকাশি) অধিনায়ক লিও মেসির স্ত্রী অ্যান্তোনেলা। মেসি বিমানবন্দরের বাইরে আসতেই তাঁর স্ত্রী তাঁকে জড়িয়ে ধরে স্বাগত জানালেন। এরপর গভীর চুম্বনে ভরিয়ে দিলেন এলএম১০’কে। যেন পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী দম্পতি তাঁরা। অসাধারণ আবেগে ভরা এই দৃশ্যকে কেউ কেউ ক্যামেরাবন্দি করলেন, কেউ তাঁদের মোবাইলে ভিডিয়ো করে রাখলেন।

আরও পড়ুন: ‘ইল রিসরজিমেন্ত’ ইতালি জন্ম দিল ফুটবলের নতুন ভাষার

ফাইনালে গোলদাতা ডি মারিয়া সহ বহু তারকাকে সেলফির আবদার মেটাতেও দেখা গেল। এরপর ‘চ্যাম্পিয়ন্স অব আমেরিকা ২০২১’ লেখা বাসে ওঠে বিজয়ী দল। সেই বাসে একইসঙ্গে লেখা ছিল ‘১৫’। কারণ ১৫ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আর্জেন্টিনা। ট্রফি জিতে তারা উরুগুয়ের সঙ্গে যৌথভাবে সবচেয়ে বেশিবার শিরোপা জেতার দিক দিয়ে শীর্ষে রয়েছে। এরপর সেই বাসেই রাজধানী প্রদক্ষিণ করেন মেসিরা। পুলিশ প্রহরায় ছিল বটে। কিন্তু জনস্রোত এবং সেলিব্রেশনকে রোধ করার কথা তাঁরা কল্পনাও করেননি। রাস্তার দুই ধরে জনগণের মহাস্রোতে তখন ভাসছেন মেসিরা, ভেসে চলেছেন। তাঁদের পরবর্তী লক্ষ্য এখন বিশ্বকাপ জয়…

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *