হাবাসের চালে বাজিমাত রয় কৃষ্ণাদের

সায়ন ঘোষ

পিছিয়ে পড়েও জয় পেল হাবাস বাহিনী। এদিন এএফসি কাপের দ্বিতীয় ম্যাচে মাজিয়া স্পোর্টসকে ৩-১ গোলে হারিয়ে দিল। এদিন হাবাস দল সাজান ৩-৫-২ ছকে। আজ হাবাস বাহিনীর দুর্গ রক্ষার দায়িত্বে ছিলেন অমরিন্দর সিং। ডিফেন্সে প্রীতম কোটাল কার্ল ম্যাকহিউ ও সুমিত রাঠি ছিলেন। মাঝমাঠে মানবীর সিং, শুভাশিস বসু, লিস্টন কোলাসো, দীপক টাংরি, লেনি রদ্রিগেজ। আপফ্রন্টে রয় কৃষ্ণা ও ডেভিড উইলিয়ামস। অন্যদিকে, মাজিয়া দল সাজায় ৪-৩-৩ ছকে। গোলে মামতকানভ। রক্ষণে আব্দুল্লাহ, ইরফান, ব্ল্যাঙ্কো ও ইয়ামিন। মাঝমাঠে নাইহান, তাকাশি ও ইব্রাহিম। আপফ্রন্টে মহৌধি, স্টেয়ার্ট ও মহামেড।

আরও পড়ুন: অনূর্ধ্ব-২০ বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে রুপো ভারতের অমিত খাত্রির

আজ প্রথমার্ধে এটিকে মোহনবাগান মিডফিল্ডকে কিছুটা অগোছালো লাগছিল। হুগো বৌমৌস না থাকাটা সবুজ মেরুন মাঝমাঠের পক্ষে একটা বড় ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়ায়। মাঝেমাঝে বারবার ফাঁক পড়ছিল। প্রথমার্ধের ২৫ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে গোল করে মাজিয়াকে এগিয়ে দেন ইব্রাহিম। এই গোলের পিছনে সুমিত রাঠি কিছুটা দায়ী। তবে দ্বিতীয়ার্ধে ঘুরে দাঁড়ায় মোহনবাগান। দ্বিতীয়ার্ধের ৪৮ মিনিটে এটিকে মোহনবাগানের পক্ষে গোলটি শোধ করেন লিস্টন কোলাসো। এরপর দীপক টাংরি চোট পেলে তাঁর পরিবর্তে শেখ সাহিলকে মাঠে নামান কোচ হাবাস। তারপর ডেভিড উইলিয়ামসের পরিবর্তে হুগো বৌমৌসকে মাঠে নামান মোহনবাগান কোচ হাবাস। হুগো বৌমৌস মাঠে নামতে ম্যাচের রং বদলে যায়।

আরও পড়ুন: প্রাক্তন আফগান ফুটবল অধিনায়ক খালেদা পোপলের আতঙ্কিত আর্জি: ‘মুছে ফেলুন যাবতীয় সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট, পুড়িয়ে দিন নিজেদের কিট’

মাঠে নেমেই এক অনবদ্য অ্যাসিস্ট করেন তিনি। ম্যাচের ৬৩ মিনিটে হুগোর বাড়ানো বল থেকে শট করলেন লিস্টন কোলাসো কিন্তু সেই শট প্রতিহত হয়ে ফিরে এলে ফিরতি বলে শট নিয়ে গোল করে মোহনবাগানকে এগিয়ে দেন রয় কৃষ্ণা। এরপর ৭৭ মিনিটে হুগো বৌমৌসের বাড়ানো বল থেকে তৃতীয় গোলটি করেন মনবীর সিং। এই জয়ের ফলে রয় কৃষ্ণারা দুই ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপে শীর্ষস্থানে রইলেন। ২৪ আগস্ট বসুন্ধরা কিংসের বিপক্ষে মাঠে নামবে সবুজ মেরুন বাহিনী। ওইদিন যদি কলকাতার এই জায়ান্ট ক্লাব ড্র করতে পারে, তাহলে ৭ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউট পর্বে উঠবে। এখন আগামী ২৪ তারিখের ম্যাচের দিকে তাকিয়ে ফুটবলপ্রেমীরা।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *