গেরুয়া শিবিরে ‘ভাঙন’ ধরাতে মুকুল রায় ফোনে কথা বললেন বিজেপির সাংসদ-বিধায়কদের সঙ্গে!

Mysepik Webdesk: পুরনো দল তৃণমূলে যোগদান করেই কাজে নেমে পড়লেন বিজেপি বিদায়ী মুকুল রায়। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই তিনি বেশ কয়েকজন বিজেপির সাংসদ এবং বিধায়কদের সঙ্গে ফোনে কথাবার্তা বলা শুরু করে দিয়েছেন। রাজনৈতিক মহলের ধারণা, রাজ্য বিজেপিতে ভাঙ্গন ধরাতেই তিনি বিজেপির সাংসদ-বিধায়কদের এবার নিজের দলে টানতে চাইছেন। অর্থাৎ আগামী কিছুদিনের মধ্যেই বেশ কয়েকজন বিজেপি বিধায়ক কিংবা সাংসদকে গেরুয়া শিবির ছেড়ে ঘাসফুল শিবিরে আসতে দেখা যায়, তাতে অবশ্য আশ্চর্য হওয়ার কিছু থাকবে না।

আরও পড়ুন: গোয়ালের গরু দড়ি ছিঁড়ে বেরিয়ে গিয়েছিল, আবার ধরে আনা হল, মুকুলের তৃণমূলে যোগদান প্রসঙ্গে জানালেন অনুব্রত

মুকুল রায়ের ঘনিষ্ট সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই মুকুল রায় উত্তরবঙ্গের তিনজন বিজেপি সাংসদের সঙ্গে কথা বলেছেন। প্রাথমিকভাবে তাঁদেরকে তৃণমূলে যোগদান করার প্রস্তাব দিয়েছেন বলেই মনে করা হচ্ছে। এদের মধ্যে আবার দু’জন মুকুল রায়ের ঘনিষ্ট নেতা। শুক্রবার মুকুল রায়ের তৃণমূলে যোগদানপর্ব শেষ হওয়ার পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, বিজেপি থেকে আরও অনেকে তৃণমূলে আসবে। এবার তাঁর কথাই মিলে যেতে চলেছে বলে ধারণা রাজনৈতিকমহলের।

আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছাড়লেন মুকুল রায়, জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেবে রাজ্য

মুকুল রায়ের তৃণমূলে যোগদানের পরে ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতা বেসুরো গাইতে শুরু করেছেন। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন নোয়াপাড়ার প্রাক্তন বিধায়ক সুনীল সিং। উল্লেখ্য, ইনি মুকুল রায়ের হাত ধরেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন। তাছাড়া বাগদার বিজেপি বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাস ইতিমধ্যে বিজেপি শিবিরে চাপ বাড়িয়ে নিজেকে মুকুল রায়ের পারিবারিক বন্ধু বলে দাবি করেছেন। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে রাজ্যের বিজেপি শিবিরে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *