নিয়ন্ত্রণরেখার উত্তেজনার মধ্যে দুই দেশ ক্রিকেট খেললে জাতীয় স্বার্থ রক্ষা হতে পারে না: বাবা রামদেব

Mysepik Webdesk: আজ বিশ্বকাপ টি-টোয়েন্টিতে রয়েছে বহু প্রতীক্ষিত ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ। দুবাইয়ের আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে দুই দলের মধ্যে এই হাইভোল্টেজ ম্যাচটি। যদিও এই ম্যাচটি নিয়ে খুব একটা খুশি দেখা গেল না যোগগুরু রামদেবকে। তাঁর মতে, এটি ‘রাষ্ট্রধর্মে’র বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, “ক্রিকেট এবং সন্ত্রাসের খেলা একসঙ্গে চলতে পারে না।” নাগপুর বিমানবন্দরের সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বাবা রামদেব বলেন, “নিয়ন্ত্রণরেখার উত্তেজনার মধ্যে উভয় দেশ ক্রিকেট খেললে জাতীয় স্বার্থ রক্ষা হতে পারে না।” এছাড়াও তিনি আরও অনেককিছু বিষয় নিয়েও তাঁর মত প্রকাশ করেছেন।

যোগগুরু বলিউডে মাদক প্রসঙ্গে বলেন, “বলিউডের এই প্রবণতা তরুণ প্রজন্মের জন্য খুবই বিপজ্জনক। মাদকাসক্তিকে যেভাবে গ্ল্যামারাইজ করা হয়, তা সাধারণ মানুষের জন্যও ক্ষতিকর। কারণ মানুষ বলিউডের তারকাদের আইডল মনে করেন। এটা এক ধরনের ষড়যন্ত্র। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ভাবমূর্তি স্বচ্ছ থাকা উচিত।”

আরও পড়ুন: ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ ঘিরে সেজে উঠছে দেশের বিভিন্ন শহরের হোটেল, পাব, ক্যাফেটেরিয়া

রামদেবকে কালো টাকা ফেরত এবং পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, “কর কমাতে হবে এবং অপরিশোধিত তেলের দাম অনুযায়ী পেট্রোল ও ডিজেলের দাম নেওয়া উচিত।” যদিও এরপর কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ নিয়ে তিনি বলেন, “বর্তমানে অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জও মোকাবিলা করতে হচ্ছে সরকারকে এবং অনেক জনকল্যাণমূলক কর্মসূচিও চালানো হচ্ছে। এই কারণেই সরকার ট্যাক্স কমাচ্ছে না।”

উল্লেখ্য যে, রামদেব প্রায় ৯ বছর আগে বলেছিলেন— “দেশে যদি কালো টাকা ফিরে আসে, তাহলে পেট্রোল ও ডিজেল প্রতি লিটারে ৩০ টাকায় পাওয়া যাবে।” কিন্তু বর্তমানে ডিজেলের দাম ১০০ ছাড়িয়েছে। পেট্রোলের দাম প্রতিদিনই চড়চড় করে বাড়ছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *