লাদাখ সীমান্তে আর দু’দেশের কেউই সেনা বৃদ্ধি করবে না, সিদ্ধান্ত বৈঠকে

Mysepik Webdesk: লাদাখ সীমান্তে ভারত চিনের মধ্যে কোনও দেশই আর নতুন করে সেনা মোতায়েন করবে না। সীমান্তে শান্তি স্থাপনের উদ্দেশ্যে ভারত চিনের বৈঠকে এরকমই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত ২১ সেপ্টেম্বর ভারত চিনের সেনাবাহিনীর সিনিয়র কম্যান্ডারদের মধ্যে একটানা ১৪ ঘন্টা দফায় দফায় বৈঠক হয়। সেই বৈঠকেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পরে মঙ্গলবার প্রকাশিত একটি যৌথ বিবৃতিতে এমনটাই দাবি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পরে খুলল তাজমহল, প্রথম পর্যটক হলেন এক চিনা নাগরিক!

পাশাপাশী বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে, ওই বৈঠকে নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি এড়াতে দুই দেশের মধ্যেই খোলামেলা এবং সমস্যার গভীরে গিয়ে আলোচনা হয়েছে। নতুন করে সেনা মোতায়েন করা না হলেও সেনা পিছিয়ে নেওয়ার বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত হয়েছে কিনা তা জানা যায়নি। জানা গিয়েছে, দুই দেশই সীমান্তে শান্তি বজায় রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। সরকারি সূত্রে দাবি, এই শীতের মরশুমে লাদাখে চরম প্রতিকূল আবহওয়ার কথা মাথায় রেখেই দুই দেশই এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে।

আরও পড়ুন: শিক্ষাবর্ষের প্রথম সেমিস্টারের ক্লাস শুরু হচ্ছে নভেম্বর থেকে

জানা গিয়েছে, বৈঠকে চিন দাবি করে, ভারতীয় সেনা যে সুবিধাজনক উঁচু পাহাড় চূড়োগুলি দখল করে রেখেছে, সেগুলি ছেড়ে পিছিয়ে যেতে হবে। আবার অন্যদিকে ভারতের দাবি, চিন সেনাকেও প্যাংগং লেকের কাছে ফিঙ্গার ফোর থেকে ফিঙ্গার এইট পর্যন্ত এলাকাও ফাঁকা করে দিতে হবে। সীমান্তে উত্তেজনা যে কোনও ভাবেই বাড়তে দেওয়া চলবে না, সে বিষয়ে একমত হয়েছে দু’পক্ষই।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *