মারাদোনার মৃত্যু-তদন্তে নয়া মোড়, অ্যাটোপিতে নেই অ্যালকোহল বা মাদক গ্রহণের ইঙ্গিত

Mysepik Webdesk: আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়েগো মারাদোনা লিভার, কিডনি এবং কার্ডিওভাসকুলার রোগে ভুগছিলেন। তবে তাঁর অ্যাটোপিতে অ্যালকোহল বা মাদক সেবন করার কোনও ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি। রাজধানী বুয়েনস আইরেসের উত্তরের শহরতলির সান ইসিড্রোর পাবলিক প্রসিকিউটর মঙ্গলবার রাতে মারাদোনার অ্যাটোপির ফলাফল প্রকাশ করেছেন। তদন্তের অংশ ছিল এই টেস্ট। কারণ মারাদোনার চিকিৎসায় কোনও গাফিলতি ছিল কিনা, তা খুঁজে বের করাই হল উদ্দেশ্য। উল্লেখ্য যে, ৬০ বছর বয়সে ২৫ নভেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছিলেন। তাঁর মৃত্যুর পরে প্রথম অ্যাটপিতে দেখা গেল যে, তাঁর হার্টের ওজন দ্বিগুণ হয়েছে।

আরও পড়ুন: বিরাটের জায়গায় আমি থাকলে ফিরতাম না দেশে: দিলীপ দোশি

Mandatory Credit: Photo by AP/REX/Shutterstock (9168659f) Argentina soccer legend Diego Armando Maradona and partner Rocio Olivia arrive for the The Best FIFA 2017 Awards at the Palladium Theatre in London Britain The Best FIFA Awards, London, United Kingdom – 23 Oct 2017

জীবনের শেষ দিনগুলিতে তিনি সিরোসিস, হৃদরোগ এবং কিডনিজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। টক্সিকোলজি বিশ্লেষণে জানা গেছে যে, তাঁর রক্ত ​​বা প্রস্রাবে কোনও অ্যালকোহল বা ড্রাগ ছিল না। তবে মারাদোনা আলসার সহ অন্যান্য রোগের জন্য অ্যান্টি-ডিপ্রেশন, অ্যান্টি-সাইকোটিক ড্রাগ এবং অন্যান্য ওষুধ গ্রহণ করছিলেন। দিয়েগো তাঁর জীবনকালে কোকেন এবং অ্যালকোহলের আসক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করেছিলেন। তদন্তকারীদের একজন ‘তেলম প্রেস এজেন্সি’কে বলেছেন― “পরীক্ষাগারে বিশ্লেষণ থেকে যা বেরিয়ে এসেছে, তা নিশ্চিত করে যে মারাদোনাকে সাইকোট্রপিক ড্রাগ দেওয়া হয়েছিল। তবে সেখানে কোনও হৃদরোগের ওষুধ ছিল না।” সাইকিয়াট্রিস্ট অগুস্টিনা কোসাচভ এবং হার্ট সার্জন লিওপল্ডো লুক রয়েছেন তদন্তের অধীনে। কারণ তাঁরা দু’জনেই এই ফুটবল কিংবদন্তির চিকিৎসা করছিলেন।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *