জিনবিদ্যায় ‘নোবেল সম্মান’ ভারতীয় রসায়নবিদের

Mysepik Webdesk: ডিএনএ সিকুয়েন্সিংয়ে যুগান্তকারী আবিষ্কার, ‘নোবেল’ সম্মান পেলেন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারতীয় অধ্যাপক শঙ্কর বালাসুব্রহ্মণ্যম ও ডেভিড লেনারম্যান। দ্রুত ও সঠিক বিশ্লেষণের জটিল এবং সময়সাপেক্ষ কাজকে সহজ করে সারা পৃথিবীকে চমৎকৃত করেছেন এই দুই রসায়নবিদ। তাঁদের আবিষ্কৃত পদ্ধতির নাম NGS (নেক্সট জেনারেশন ডিএনএ সিকুয়েন্সিং)। এই পদ্ধতিতে আস্ত জিনের বিন্যাসকে কম সময়ে ছোটো ছোটো টুকরোয় ভেঙে ফেলা যাবে। এই আবিষ্কার মহামারি রোধ করতে বিশ্বকে পথ দেখাবে।

আরও পড়ুন: এবার ট্র্যাকিং টুইটারেও

১৯৯৪-১৯৯৮ সালে এই বিষয়টি নিয়ে গবেষণা শুরু করেন বিজ্ঞানীরা। বিজ্ঞানের ভাষায় এই পদ্ধতিটিকে ‘ম্যাসিভ প্যারালাল সিকুয়েন্সিং’ বলে। সেই গবেষণাকেই বর্তমানে এই দুই বিজ্ঞানী আরো উচ্চমানে নিয়ে গেছে। অধ্যাপক মার্জা ম্যাকারো (ফিনল্যান্ডের টেকনলজি আ্যকাডেমির চেয়ারম্যান) বলেছেন, এই নতুন পদ্ধতি মহামারির মোকাবিলায় কাজে আসবে। সার্স-কভ-২ ভাইরাসের মিউটেশন রোধ করতে গেলে এই পদ্ধতিতে ভাইরাল জিনোম বিশ্লেষণ করতে হবে। এবং আগামীতে যে কোনো মারণব্যাধির কারণ ও চিকিৎসা পদ্ধতি জানতেই এই পদ্ধতি ভীষণভাবে কাজে আসবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *