মিলেছে ছাড়পত্র, আগামী কয়েকদিনেই ভারতে ফাইজার থেকে নোভাভ্যাক্স

Mysepik Webdesk: গত বছরের শেষের দিকে বিশ্ববাসী কিছুটা হলেও করোনার ভয়াবহতা কাটিয়ে উঠেছিল। স্বাভাবিক ছন্দে ফিরছিল গোটা বিশ্ব। কিন্তু চলতি বছরের শুরুতে ফের খেল দেখাতে শুরু করেছে করোনাভাইরাস। ইতিমধ্যেই বিশ্বের বেশ কিছু দেশ ফিরে গিয়েছে লকডাউনে। ফিরে এসেছে গত বছরের স্মৃতি। বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশে করোনার প্রতিষেধক দেওয়ার কাজ শুরু হয়ে গেলেও কিছুতেই রোখা যাচ্ছে না এই প্রাণঘাতী ভাইরাসকে। ভারতেও পরিস্থিতি ক্রমেই ভয় ধরানোর মতোই। ইতিমধ্যেই ভারতের বেশ কয়েকটি শহরে শুরু হয়েছে নাইট কার্ফু। ১৫ দিনের জন্যে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে মহারাষ্ট্রে। দেশের স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ভারতের পাঁচ রাজ্যে রেকর্ড সংখ্যক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

আরও পড়ুন: একই দিনে করোনা আক্রান্ত পজিটিভ যোগী আদিত্যনাথ ও অখিলেশ যাদব

এই পরিস্থিতে ভারতে তৈরি কোভ্যাকসিন ও কোভিশিল্ড বর্তমানে প্রয়োগ করা হলেও যা যথেষ্ট নয় বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সেই কারণেই জরুরি ভিত্তিতে মঙ্গলবার কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আরও বেশ কয়েকটি করোনা ভ্যাকসিন ভারতে অনুমোদন পেতে চলেছে। তাদের মধ্যে রয়েছে রয়েছে আমেরিকার তৈরি ফাইজার, জনসন অ্যান্ড জনসনের ভ্যাকসিন এবং নোভাভ্যাক্স। ইতিমধ্যেই ভ্যাকসিন ভারতে আপৎকালীন প্রয়োগের জন্য জনসন অ্যান্ড জনসনের সঙ্গে কথাও হয়েছে কেন্দ্রের। ওই ভ্যাকসিন এখনও পর্যন্ত ভারতে প্রয়োগ করার ক্ষেত্রে অনুমোদন পায়নি। তবে শীঘ্রই তা অনুমোদন পাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *