লছমন ঝুলা ফুটব্রিজে ‘নগ্ন’ ভিডিও শ্যুট, গ্রেফতার ফরাসি যুবতী

Mysepik Webdesk: পবিত্র তীর্থক্ষেত্র হৃষিকেশের কাছে লছমন ঝুলা ফুটব্রিজে নগ্ন হয়ে নিজের ভিডিয়ো রেকর্ড করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে এক মেরি হেলেন নামে ২৭ বছরেএ এক ফরাসি যুবতীকে। তবে তিনি তাঁর অপরাধ স্বীকার করে নিয়েছেন। তিনি দাবি করেছেন, তিনি সম্পূর্ণ নগ্ন ছিলেন না। যৌন নিগ্রহর প্রতি নজর ঘোরানোর উদ্দেশ্যেই তিনি লছমন ঝুলার ওপর স্টান্ট করেছিলেন। তিনি অনলাইনে নেকলেস বিক্রি করেন। ব্যবসার প্রচারের উদ্দেশেই তিনি ভিডিও শ্যুট করেছিলেন। পরে অবশ্য তাঁকে জামিনে মুক্তি দেওয়া হয় কিন্তু তদন্তের স্বার্থে তাঁর মোবাইলটি বাজেয়াপ্ত করা হয়।

আরও পড়ুন: ডাক্তারদের এবার থেকে ৫ বছর গ্রামে, পাহাড়ে বা আদিবাসী এলাকায় কাজ করতে হবে: সুপ্রিম কোর্ট

নিজের রেকর্ড করা ভিডিও ফুটেজে তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার পরেই সেটি পুলিশের নজরে আসে। তারপরেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। তাঁর বিরুদ্ধে দেশের ইন্টারনেট আইন ভঙ্গ করার পাশাপাশি অশ্লীলতার অভিযোগ আনা হয়েছে। সংবাদসংস্থা এএফপিকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকাতে ওই যুবতী জানিয়েছেন, “যখনই এই সেতু পেরিয়েছি, তখনই কোনও না কোনও নিগ্রহের সম্মুখীন হয়েছি। তাই লছমন ঝুলায় নিজেকে আংশিক নগ্ন করার সিদ্ধান্ত নিই। ভারতের নিপীড়িত মহিলাদের জন্য শিক্ষা, বিয়ের পরের যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেওয়াই ছিল আমার মূল লক্ষ্য। তবে স্থানীয় মানুষের ভাবাবেগে আঘাত করার জন্য আমি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *