সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে কোভিশিল্ডের ১০ লক্ষ ডোজ পাঠানো হল মেক্সিকোয়

Mysepik Webdesk: ফের বন্ধুত্বের নজর গড়ল ভারত। করোনা আবহে বিশ্বের অন্য দেশকে ভ্যাকসিন দিয়ে সাহায্য করতে এগিয়ে এলো ভারত। পুণের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের ১০ লক্ষ ডোজ পাঠানো হয়েছে মেক্সিকোয়। রবিবার ওই ভ্যাকসিন মক্সিকো পৌঁছে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর এই প্রসঙ্গে টুইট করে জানিয়েছেন, “এতেই আমাদের বন্ধুত্ব প্রকাশ পেল।” বন্ধুত্ব কথাটি লিখতে তিনি স্প্যানিশ ভাষা ‘আমিস্তাদ’ ব্যবহার করেছেন।

আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনার মৃত্যু ৯০, বাড়ল অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ-সহ ভারতের প্রায় ২১টি প্রতিবেশী দেশে করোনা ভ্যাকসিন পাঠানোর কথা আগেই ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন, এই দু’ধরণের টিকাই পাঠানো হবে বলে জানানো হয়েছিল। এবার সেইমতো ওমান, মঙ্গোলিয়া, মায়ানমার, বাহরিন, মরিশাস, ফিলিপিন্স, মালদ্বীপের মতো দেশগুলোতে পাঠানো হয়েছে এই টিকা। সূত্রের খবর, এ পর্যন্ত ২০টি দেশে প্রায় ৩০ লক্ষ কোভিড ১৯ ভ্যাকসিনের ডোজ পাঠিয়েছে ভারত। শুধু তাই নয়, কম দামে আরও দুটি ধাপে মোট ৬৪ লক্ষ ও ১৬৫ লক্ষ ডোজ বিক্রি করা হয়েছে বিভিন্ন দেশে। আগামী দিনে আফ্রিকা ও ল্যাটিন আমেরিকার বেশ কয়েকটি দেশেও পাঠানো হবে ভ্যাকসিন।

আরও পড়ুন: আগামী দিনে বিদেশেও সরকার গড়বে বিজেপি, আজব দাবি বিপ্লব দেবের

Image result for covishield reached in mexico

বিশেষজ্ঞদের মতে ভারতের তৈরি এই ভ্যাকসিন প্রযুক্তিগতভাবে চিনের থেকে অনেকটাই এগিয়ে। শুধু তাই নয়, চিনের ভ্যাকসিনের চেয়ে ভারতের ভাসাসিনকে অনেক বেশি গুরুত্ব দিয়েছে বিশ্বের বহু দেশ। সেক্ষেত্রে চিনের ভ্যাকসিনের চেয়ে ভারতের ভ্যাকসিনের চাহিদাও তুঙ্গে। প্রথম পর্যায়ে ভারত থেকে ২০ লক্ষ ডোজ কোভিশিল্ড টিকা পাঠানো হয়েছে বাংলাদেশে। বিশেষ বিমানে করে ওই টিকার ডোজ দিল্লি থেকে পৌঁছে গিয়েছে ঢাকায়। ভারতীয় হাইকমিশনের তরফে ওই টিকা তুলে দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট প্রতিনিধিদের হাতে।

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *