অস্কার জিতল সেরা ছবি ‘নোম্যাডল্যান্ড’

Mysepik Webdesk: সিনেমা জগতের সর্বোচ্চ পুরস্কার অস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হল আজ, ২৬ এপ্রিল। সেরা চলচ্চিত্র হিসাবে অস্কার পেল ‘নোম্যাডল্যান্ড’, পরিচালক ক্লোয়ি ঝাও। তিনি একইসঙ্গে দ্বিতীয় নারী পরিচালক এবং অশ্বেতাঙ্গ প্রথম নারী যিনি এই পুরস্কার পেলেন।

আরও পড়ুন: কঠিন দিনে ভারতের পাশে আরব আমিরশাহি, বুর্জ খলিফায় ফুটে উঠলো তেরঙ্গা

‘নোম্যানল্যান্ড’-এর গল্পটির প্রধান চরিত্রের নাম ফার্ন। গল্পটি ফার্ন নামের নারীটিকে ঘিরেই।
ষাটে পা দেওয়া ফার্ন আমেরিকার মহামন্দার সময় সব হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে যান। এরপর পশ্চিমে চলে গিয়ে বেছে নেন যাযাবর জীবন। ফার্নের চরিত্রে দুর্দান্ত অভিনয় করে অস্কার ছিনিয়ে নিয়েছেন অভিনেত্রী ম্যাকডোরমান্ড। এটি ওনার তৃতীয় অস্কার।

সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন অ্যান্থনি হপকিনস। তাঁর অভিনীত চলচ্চিত্রটি হল ‘দ্য ফাদার’। সেখানে তিনি ডিমেনশিয়াতে আক্রান্ত বৃদ্ধের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। তিনিই সবচেয়ে বয়স্ক অভিনেতা, যিনি অস্কার জয় করলেন। অন্যদিকে সেরা মৌলিক চিত্রনাট্যের ট্রফি জিতলেন অভিনেত্রী, লেখিকা, পরিচালক এমারেল্ড ফেনেল।

আরও পড়ুন: জন্মদিনের দামি উপহার পেতে ৩৫ জনের সঙ্গে প্রেম! অতঃপর

ডেনমার্কের পরিচালক থমাস ভিনটারবার্গ পুরস্কার নেওয়ার সময় চোখের কোনে জল নিয়ে জানালেন যে, সিনেমাটির জন্য এই পুরস্কার পাওয়া সেই সিনেমাটির শ্যুটিং শুরুর চারদিনের মধ্যেই সড়ক দুর্ঘটনায় তিনি হারিয়েছেন তাঁর কিশোরী কন্যাকে।তাঁর কষ্ট কাঁদাল দর্শকদেরও। পোশাক পরিকল্পনার জন্য পুরস্কার পেলেন সবচেয়ে বেশি বয়সি অস্কার জয়ী নারী ৮৯ বছরের অ্যান রথ।

এবার দেখে নেওয়া যাক ৯৩তম অস্কার বিজয়ীদের তালিকা:

সেরা চলচ্চিত্র: নোম্যাডল্যান্ড (ক্লোয়ি ঝাও)
সেরা অভিনেতা: অ্যান্থনি হপকিনস (দ্য ফাদার)
সেরা অভিনেত্রী: ফ্রান্সেস ম্যাকডোরম্যান্ড (নোম্যাডল্যান্ড)
সেরা পরিচালক: ক্লোয়ি ঝাও (নোম্যাডল্যান্ড)
সেরা সহ-অভিনেতা: ড্যানিয়েল কালুইয়া (জুডাস অ্যান্ড দ্য ব্ল্যাক মেসিয়া)
সেরা সহ-অভিনেত্রী: ইউ-জুং ইউন (মিনারি)
সেরা চিত্রনাট্য (মৌলিক): প্রমিজিং ইয়ং উইম্যান (এমারেল্ড ফেনেল)
সেরা চিত্রনাট্য (অ্যাডাপটেড): দ্য ফাদার (ফ্লোরিয়ান জেলার)
সেরা আন্তর্জাতিক কাহিনিচিত্র: অ্যানাদার রাউন্ড (থমাস ভিনটারবার্গ, ডেনমার্ক)
সেরা অ্যানিমেটেড ছবি: সোল (পিক্সার স্টুডিও)
সেরা পোশাক পরিকল্পনা: অ্যান রথ (মা রেইনিস ব্ল্যাক বটম)
সেরা সম্পাদনা: সাউন্ড অফ মেটাল (মিকেল ইজি নিলসন)
সেরা রূপ ও চুলসজ্জা: মা রেইনিস ব্ল্যাক বটম
সেরা আবহসংগীত: সোল (জন বাতিস্তা, ট্রেন্ট রেজনর ও অ্যাটিকাস রস)
সেরা মৌলিক গান: ফাইট ফর ইউ (গ্যাব্রিয়েলা উইলসন-এইচইআর, জুডাস অ্যান্ড দ্য ব্ল্যাক মেসিয়া)

আরও পড়ুন: অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিরাপদ, মালয়েশিয়ায় ষাটোর্ধ্বদের দেওয়ার প্রস্তুতি শুরু

সেরা শিল্প নির্দেশনা: ম্যাঙ্ক
সেরা শব্দ সম্পাদনা ও মিশ্রণ: সাউন্ড অব মেটাল (নিকোলাস বেকার, জেমি বাকট, মিশেল কুটোলেংক, কারলোস করতেস, ফিলিপ ব্লাদ)
সেরা ভিজ্যুয়াল ইফেক্টস: টেনেট (অ্যান্ড্রু জ্যাকসন, ডেভিড লি, অ্যান্ড্রু লকলি, স্কট ফিশার)
সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র: টু ডিসট্যান্ট স্ট্রেঞ্জারস (ট্রেভন ফ্রি ও মার্টিন ডেসমন্ড রো)
সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য প্রামাণ্যচিত্র: কোলেট (অ্যান্থনি জিয়াচিনো ও অ্যালিস ডোয়ার্ড)
সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য অ্যানিমেটেড ছবি: ইফ অ্যানিথিং হ্যাপেনস আই লাভ ইউ (উইল ম্যাককরমেক ও মাইকেল গোভিয়ার)
সেরা সিনেমাটোগ্রাফি: ম্যাঙ্ক (এরিখ মেসারস্মিডট)

সূত্র: বিবিসি, ইউএসএ টুডে

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *