ভারত-পাক সীমান্তে নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে একাধিক মোবাইল টাওয়ার বসাচ্ছে পাকিস্তান, কিন্তু কেন?

Mysepik Webdesk: ভারতে বিচ্ছিন্নতাবাদী হামলা চালানোর উদ্দেশ্যে জঙ্গিদের ক্রমাগত মদত দিয়ে আসছে পাকিস্তান, সেকথা নতুন করে আর বলার কিছুই নেই। ভারতীয় সেনার দৃষ্টি এড়িয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করার উদ্দেশ্যে এখনও বহু জঙ্গি নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপারে দিন গুনছে। এবার কাশ্মীরে প্রবেশ করা জঙ্গিদের সঙ্গে যাতে নিরবিচ্ছিন্ন যোগাযোগ রাখা সম্ভব সয়, সেই উদ্দেশ্যেই নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই একাধিক মোবাইল টাওয়ার বসাচ্ছে।

আরও পড়ুন: প্রচুর সংখ্যক করোনা ভ্যাকসিন বানাতে ভারতের পরিকাঠামো অনেক উন্নত, দাবি বিল গেটসের

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, ভারতের ক্ষতি করার জন্য এবার উঠেপড়ে লেগেছে পাক মদতপুষ্ট জঙ্গিরা। জানা গিয়েছে এই মুহূর্তে পাক অধিকৃত কাশ্মীর, গিলগিট-বালটিস্তানের নিয়ন্ত্রণরেখায় বর্তমানে মোট ২৮টি মোবাইল টাওয়ার রয়েছে। এছাড়াও আরও নতুন করে ৩৮টি টাওয়ার বসাতে উদ্যোগী হয়েছে পাক-সরকার। তার জন্য জায়গাও চিহ্নিতকরণের কাজ শেষ হয়ে গিয়েছে। জানা গিয়েছে, চামে, সোপোরের অদূরে লেপা, মুজফ্ফরাবাদ এবং আপার নীলম উপত্যকার বিভিন্ন এলাকার নাম রয়েছে ওই তালিকায়। পাশাপাশি পুরোনো টাওয়ারগুলিও দ্রুত উন্নত করার কাজ শুরু করে দিয়েছে পাকিস্তান।

আরও পড়ুন: ফের বিশ্বের দরবারে উজ্জ্বল হল বাংলার নাম, ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলার শান্তি পুরস্কার পেলেন অমর্ত্য সেন

চলতি বছরের শুরু থেকেই কাশ্মীরে জঙ্গি দমন অপেরেশনে উল্লেখ্যযোগ্য সাফল্য পেয়েছে ভারতীয় সেনা। ইতিমধ্যেই বহু জঙ্গি ঘাঁটি ভেঙে গুড়িয়ে দিয়েছে ভারতীয় সেনা। নিকেশ করেছে বেশ কয়েকজন জঙ্গি নেতাকেও। সেই কারণেই ভারতের ক্ষতি করার জন্য নতুন করে তৈরি হচ্ছে তারা। জানা গিয়েছে, ভারতে অনুপ্রবেশকারী জঙ্গিরা যদি পাকিস্তানি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে, তাহলে ভারতীয় গোয়েন্দারা সেই সংযোগ আটকাতে পারবে না। তবে ভারতও তৈরি রয়েছে। ওই সিগন্যাল আটকাতে ভারতের তরফেও নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর ১৮টি জিএসএম অ্যান্টেনা বসানো হবে।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *