মাদক কাণ্ডে NCB -র অন্যতম সাক্ষীকে গ্রেফতার করল পুলিশ

Mysepik Webdesk: যত দিন যাচ্ছে শাহরুখ-পুত্র আরিয়ানের মাদক কাণ্ডের ঘটনা ততই জটিল আকার ধারণ করছে। এবার মাদক কাণ্ডের NCB -র অন্যতম সাক্ষী কিরণ গোসাভিকে গ্রেফতার করল পুনের পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর, ২০১৮ সালে দায়ের করা একটি প্রতারণা মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এতদিন পর্যন্ত বেপাত্তা ছিল কিরণ, কিন্তু আরিয়ান খানের ঘটনার সময় তাকে ফের প্রকাশ্যে আসতে দেখা গিয়েছে। তখন থেকেই লুক আউট নোটিশ জারি করে পুলিশ। পুনের পুলিশ কমিশনার অমিতাভ গুপ্ত তার গ্রেফতারির খবর স্বীকার করছেন।

আরও পড়ুন: আজও জামিন পেলেন না আরিয়ান, শুনানি আগামীকাল

এদিকে ২৫ কোটি টাকার বিনিময়ে শাখরুখ পুত্রকে ছেড়ে দেওয়া হবে, এমনই ডিল অফার করা হয়েছে NCB -র পক্ষ থেকে, এমনটাই দাবি করেছিলেন প্রভাকর সাইল নামে মাদক কাণ্ডের এক সাক্ষী। এমনকি তাঁকে দিয়ে একটি সাদা কাগজে সই করিয়ে নেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। শুধু তাই নয়, তাঁর প্রাণের ঝুঁকি রয়েছে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন তিনি। অন্যদিকে, এই মামলায় প্রথম থেকেই রাজনৈতিক প্রভাব খাটানোর অভিযোগ তুলেছেন NCP নেতা নবাব মালিক। অরিয়ানের সঙ্গে সেলফি তুলতেই ব্যস্ত NCB-র আধিকারিকরা, অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন: আরিয়ানের সঙ্গে দেখা করতে আজই আর্থার রোড জেলে আসছেন শাহরুখ-পত্নী গৌরী খান

অন্যদিকে NCP নেতা নবাব মালিক NCB-র জোনাল ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ আনেন। একটি সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, “আমার কাছে খবর আছে, সমীর ওয়াংখেড়ে দুই প্রাইভেট গোয়েন্দার সাহায্যে ফোনে আড়ি পাতার কাজ চালাচ্ছেন। আমার ফোনও ট্যাপ করে হয়েছে। রাজ্যের নামী ব্যক্তিত্বদের ফোন ট্যাপ করার পাশাপাশি বলিউড সেলেব্রিটিদের উপরেও বেআইনিভাবে নজর রাখছেন সমীর ওয়াংখেড়ে।” তাঁর দাবি, NCB-র আড়ালে বহু টাকা রোজগার করছেন সমীর। ইতিমধ্যেই সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে বিভাগীয় কমিটি গঠন করা হয়েছে, যার দায়িত্বে রয়েছেন DDG NCB জ্ঞানেশ্বর সিং। তাঁর বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *