বার্সেলোনায় অশান্তির মধ্যে লিওনেল মেসির ভবিষ্যৎ নিয়ে উঠছে প্রশ্ন

Lionel Messi

Mysepik Webdesk: বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে লজ্জাজনক ২-৮ গোলে পরাজয়ের পর তাদের কাঠামোয় ব্যাপক পরিবর্তনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বার্সেলোনা এখন নতুন কোচ ঘোষণার কাছাকাছি। এদিকে, একটি বড় প্রশ্ন হচ্ছে দলটি তারকা খেলোয়াড় লিওনেল মেসিকে তাদের সঙ্গে রাখতে পারবে কিনা।

আরও পড়ুন: করোনায় পিছিয়ে গেল ফরাসি ঘরোয়া ফুটবল লিগের প্রথম ম্যাচ

এক দশকেরও বেশি সময় ধরে দলের সবচেয়ে বড় তারকা মেসির ২০২১ সাল পর্যন্ত বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ থাকলেও তিনি ক্লাবের প্রতি অসন্তুষ্টি গোপন করছেন না। মঙ্গলবার বার্সেলোনার প্রেসিডেন্ট জোসেপ বার্তোমিউ বার্সা টিভিকে বলেছেন, “আমি এখনও মেসির সঙ্গে কথা বলিনি, তবে তাঁর বাবার সঙ্গে কথা বলেছি।”

তিনি বলেন, “মেসি সবার মতো হতাশ এবং বিরক্ত। এটি দুঃখজনক ছিল। তবে আমাদের নিজেদেরকেই সামলাতে হবে।” মেসি দলের সমস্যা এবং ক্লাবের পরিচালকদের দুর্বল সিদ্ধান্তের বিষয়ে কথা বলেছিলেন। যদিও তিনি দল ছাড়ার বিষয়ে সুস্পষ্ট ইঙ্গিত দেননি। তবে মেসির সাম্প্রতিক পদক্ষেপগুলি দলের সঙ্গে তাঁর ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উত্থাপন করেছে।

আরও পড়ুন: ব্যাটে-বলে নারাইন-ম্যাজিকে জয় ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের

বায়ার্ন মিউনিখ পাঁচবারের বিজয়ী বার্সেলোনাকে ৮-২ ব্যবধানে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফুটবলের সেমিফাইনালে প্রবেশ করেছে। লিওনেল মেসির যুগে এটি ছিল বার্সেলোনার সবচেয়ে বিব্রতকর পরাজয়। বার্সেলোনা ১৯৪৬ সালের পর প্রথমবারের মতো একটি ম্যাচে ৮ গোল খেয়েছে। এর আগে ১৯৪৬ সালে সেভিলার বিপক্ষে শেষ ১৬-র ম্যাচে তারা ০-৮ ব্যবধানে পরাজয়ের মুখোমুখি হয়েছিল।

২০০৪-০৫ মরশুমের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রথমবারের মতো এমনটা হবে, যখন লিওনেল মেসি বা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো সেমিফাইনাল খেলবেন না। এই দুই তারকার ক্লাব বার্সেলোনা এবং জুভেন্টাস লিগ থেকে বাদ পড়েছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *