রাহুল গান্ধী-প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে গ্রেফতার করল পুলিশ, পায়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন হাথরস

rahul gandhi

Mysepik Webdesk: উত্তরপ্রদেশের হাথরসে নির্যাতিতার পরিবারের সাথে দেখা করতে কংগ্রেস কর্মীদের সঙ্গে দিল্লি থেকে পায়ে হেঁটে রওনা দিয়েছিলেন। কিন্তু সেই ভিড়কে গ্রেটার নয়ডা পুলিশ মাঝপথে আটকে দেয়। পরে ফের রাহুল প্রিয়াঙ্কা পায়ে হেঁটে হাথরসে যাওয়ার চেষ্টা করলে প্রিয়াঙ্কা ও রাহুল গান্ধীকে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ গ্রেফতার করে। সেখান থেকে পুলিশ দু’জনকেই জিপে তুলে নিয়ে চলে যায়। রাহুল গান্ধীর গাড়িকে উত্তরপ্রদেশ বর্ডারে আটকে দেওয়া হলে পায়ে হেঁটেই তাঁরা কর্মীদের সঙ্গে পথ চলা শুরু করেন। পুলিশের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কিতে রাহুল গান্ধী মাটিতে পড়ে যান।

আরও পড়ুন: একের পর এক ধর্ষণ, যোগী আদিত্যনাথের পদত্যাগের পাশাপাশি উত্তরপ্রদেশে রাষ্ট্রপতির শাসনের দাবি বিরোধীদের

সেই সময় রাহুল গান্ধীকে পুলিশের উদ্দেশ্যে বলতে শোনা যায়, তাঁকে যতই আটকানোর চেষ্টা করা হোক না কেন, তিনি হাথরস যে করেই হোক পৌঁছে যাবেন। পুলিশ রাহুল গান্ধীকে বলেন, “আপনাকে আর এগিয়ে যেতে দেওয়া হবে না।” এরপরেই পুলিশ ১৮৮ ধারায় রাহুল গান্ধী এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে গ্রেফতার করে।

আরও পড়ুন: করোনা আবহে ট্রেন সফরের ক্ষেত্রে মানতে হবে এই নিয়মগুলি

রাহুল গান্ধী জানিয়েছেন, “আমাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে। আমার ওপর লাঠিচার্জ করা হয়েছে। ” প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, “মোদীজি দেশে এসব কি হচ্ছে?” অন্যদিলে পাল্টা রাহুল গান্ধীর ওপর হাথরসের ঘটনা নিয়ে রাজনীতি করার অভিযোগ উঠেছে। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে হাতরসে ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে। সেখানে যাওয়ার চেষ্টা করার জন্য আইন অনুযায়ী রাহুল গান্ধী এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *