Latest News

Popular Posts

সাইনাকে হারিয়ে হইচই ফেলে দেওয়া ২০ বছর বয়সি তরুণীকে চিনে নিন

সাইনাকে হারিয়ে হইচই ফেলে দেওয়া ২০ বছর বয়সি তরুণীকে চিনে নিন

Mysepik Webdesk: কিংবদন্তি শাটলার এবং লন্ডন অলিম্পিকের ব্রোঞ্জ পদক বিজয়ী সাইনা নেহওয়ালকে হারিয়ে হইচই ফেলে দিয়েছেন ২০ বছর বয়সি এক তরুণী। বৃহস্পতিবার ইন্ডিয়ান ওপেন ব্যাডমিন্টন টু্নামেন্টে মালবিকা বান্সোড় মহিলাদের সিঙ্গলসের দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে ২১-১৭, ২১-৯ ব্যবধানে হারিয়ে দিয়েছেন সাইনাকে। মাত্র ৩৪ মিনিটেই হার স্বীকার করেন সাইনা। বর্তমানে বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে ২৫ নম্বরে রয়েছেন সাইনা। অন্যদিকে, মালবিকার র‌্যাঙ্কিং ১১১।

আরও পড়ুন: ডিআরএস নিয়ে অগ্নিশর্মা কোহলি ব্রিগেড, আফ্রিকান সম্প্রচারকারীর উপর অসততার অভিযোগ

মালবিকা মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা। ২০ বছর বয়সি এই খেলোয়াড় বর্তমানে ব্যাডমিন্টনের উদীয়মান তারকা। তিনি অনূর্ধ্ব-১৩ এবং অনূর্ধ্ব-১৭ স্তরে রাজ্য চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছেন। ২০১৮ সালে মালবিকা বিশ্ব জুনিয়র ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের জন্য ভারতীয় দলে নির্বাচিত হয়েছিলেন। ওই বছরই তিনি কাঠমান্ডুতে দক্ষিণ এশিয়া ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ী হয়েছিলেন। ২০১৯-এ তিনি অল ইন্ডিয়া সিনিয়র র‌্যাঙ্কিং টুর্নামেন্ট জিতেছিলেন। ২০১৯-এই মালবিকা মালদ্বীপ ইন্টারন্যাশনাল ফিউচার টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছিলেন।

সাইনা নেওয়ালকে তাঁর আদর্শ বলে মনে করেন মালবিকা। এই ম্যাচে সাইনার সঙ্গে প্রথম দেখা হয় তাঁর। ঘরোয়া এবং আন্তর্জাতিক ব্যাডমিন্টন সার্কিট কোর্টে লন্ডন অলিম্পিকের ব্রোঞ্জ পদক জয়ী সাইনা নেওয়ালকে হারানো দ্বিতীয় ভারতীয় খেলোয়াড় হয়েছেন মালবিকা। ২০০৭ সালে পি ভি সিন্ধুর পর সাইনা পরাজিত হয়েছেন মালবিকার কাছে। সাইনার বিরুদ্ধে জেতার পর মালবিকা বলেন, “ছোটবেলা থেকেই তাঁকে দেখে আসছি। তিনি আমার আদর্শ। তাঁকে পরাজিত করা আমার কাছে স্বপ্ন পূরণের মতো।”

২০০১ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর মহারাষ্ট্রের নাগপুরে জন্মানো মালবিকা বান্সোড় উচ্চশিক্ষিত পরিবারের মেয়ে। তাঁর মা-বাবা ডেন্টিস্ট। মালবিকার মা তাঁর মেয়েকে ব্যাডমিন্টন কেরিয়ার গড়তে সাহায্য করার জন্য ক্রীড়াবিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। ৮ বছর বয়সে ব্যাডমিন্টনে হাতেখড়ি হয় মালবিকার। তিনি পড়াশোনাতেও খুবই ভালো। দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষার ৯০%-র বেশি নম্বর পেয়েছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন: ইন্ডিয়ান ওপেনে করোনা হানা, শ্রীকান্ত-পুনাপ্পাসহ ৭ ভারতীয় শাটলার আক্রান্ত

জাতীয় পর্যায়ে অনেক স্বর্ণপদক জিতেছেন মালবিকা। মহারাষ্ট্র-ভিত্তিক একটি অলাভজনক সংস্থার কাছ থেকে নাগভূষণ পুরস্কার, খেলো ইন্ডিয়া ট্যালেন্ট ডেভালপমেন্ট অ্যাথলেট অ্যাওয়ার্ড এবং টার্গেট অলিম্পিক পডিয়াম স্কিম অ্যাথলেট অ্যাওয়ার্ডের মতো বেশ কয়েকটি পুরস্কার জিতেছেন। মালবিকা সম্পর্কে আরেকটি তথ্য হল, তিনি দু’বারের অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন লিন ড্যানকেও তাঁর আদর্শ মনে করেন। মালবিকার আশা, এই চৈনিক বাঁ-হাতি শাটলারের সঙ্গে কখনও দেখা হবে তাঁর।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন। https://www.facebook.com/mysepik

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *