জিন্নাহর মূর্তি ভেঙে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের বাসিন্দাদের

Mysepik Webdesk: পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বাসিন্দারা খোদ ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেছে। সেই কারণেই এবার বালোচিস্তানের বুকে গুড়িয়ে দেওয়া হল মহম্মদ আলী জিন্নাহর মূর্তি। রবিবার বালোচিস্তানের বন্দরশহর গদরে বিস্ফোরণের মাধ্যমে গুড়িয়ে দেওয়া হয় জিন্নাহর মূর্তিটি। ওই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে বালোচ বিদ্রোহী সংগঠন ‘বালোচ লিবারেশন ফ্রন্ট’। প্রসঙ্গত, বহুদিন ধরেই বালোচিস্তানকে পাকিস্তানের হাত থেকে স্বাধীন করতে উদ্যোগী হয়েছে বিদ্রোহী সংগঠনটি।

আরও পড়ুন: চুল-দাড়ি কাটা যাবে না, ফতোয়া জারি তালিবান সরকারের

চলতি বছরের শুরুতে পাক প্রশাসন বালোচিস্তানের একটি সুরক্ষিত এলাকায় ওই মূর্তিটি স্থাপন করেছিল। কিন্তু শনিবার রাতেই ওই মূর্তিটির নিচে বিস্ফোরক স্থাপন করেছিল বিদ্রোহী সংগঠনের কর্মীরা। রবিবার বিকেলে ঘটানো হয় বিস্ফোরণ। পাক সংবাদমাধ্যম দ্যা ডন জানাচ্ছে, ইতিমধ্যেই পাক-সেনা বিদ্রোহীদের খুঁজে বের করতে অভিযান শুরু করে দিয়েছে।

আরও পড়ুন: পাক-অধিকৃত কাশ্মীরকে সন্ত্রাসের আঁতুড়ঘরে পরিণত করেছে ইসলামাবাদ, বিক্ষোভে সামিল রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা

২০১৫ সালে পাকিস্তান-চিনের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়, যে চুক্তি অনুযায়ী চিন-পাকিস্তানের মধ্যে অর্থনৈতিক করিডর বা সিপিইসি নির্মাণকার্য শুরু হয়েছে। চিনের প্রস্তাবিত ‘ওয়ান বেল্ট, ওয়ান রোড’ নীতির উপর ভিত্তি করে, পাকিস্তানকে অর্থ সাহায্য ও পণ্য পরিবহনের জন্য এই করিডরটি তৈরি হচ্ছে। পাকিস্তানের গদর পোর্ট থেকে চিনের শিনজিং প্রদেশ পর্যন্ত মোট ২ হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ এই করিডরটি বিস্তৃত থাকবে। এই করিডর নিয়েই অনেকদিন ধরেই বিক্ষোভ প্রদর্শন করে আসছে ‘বালোচ লিবারেশন ফ্রন্ট’। সংগঠনের দাবি, তাদেরকে বাসভূমি থেকে উচ্ছেদ করে করিডর নির্মাণের কাজ হচ্ছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *