সরস্বতী পুজো অনিশ্চয়তার মাঝে মৃৎশিল্পীরা

Nadia

Mysepik Webdesk: “সরস্বতী মহাভাগে বিদ্যে কমললোচনে বিশ্বরুপে বিশালাক্ষি বিদ্যাংদেহী নমোহস্তুতে।” বছরের বসন্ত শুক্ল পঞ্চমী তিথিতে, এই মন্ত্রোচ্চারণের মাধ্যমে স্মরণ করতে বোধহয় ভোলে না কোনো ছাত্রছাত্রীই! তবে মাধ্যমিকের গণ্ডি পেরোনো অথবা কলেজ পড়ুয়াদের মাঝে এদিনটি বাঙালির ভ্যালেন্টাইন্স ডে হিসেবে পালিত হয়ে আসতে দেখা যাচ্ছে বিগত বেশ কয়েকবছর যাবৎ।

আরও পড়ুন: একনজরে বাংলার বাজেট

তবে করোনা আবহের জন্য প্রায় এক বছর বন্ধ ছিল বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। সঠিক সময়ে কুল ফললেও! স্কুল খোলার নাম গন্ধ ছিল না। তবে শিক্ষামন্ত্রীর প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে স্কুল খোলার কথা আগেভাগে সকলে জানতে পারলেও বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে এখনো লিখিত নির্দেশ এসে পৌঁছায়নি। তাই এবছর বিদ্যার দেবী আসার আগেই কি স্কুল খুলবে? যদি তা না হয়, তাহলে পুজোর আবশ্যকতা কি? এই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিভিন্ন অভিভাবকবৃন্দ।

আরও পড়ুন: রাজ্য বাজেটে পর্যটন শিল্পকে চাঙ্গা করতে উদ্যোগ মমতার

তবে বেশিরভাগ বিদ্যালয়ে সরস্বতী পুজো হচ্ছে কি না, তা নিয়ে যাদের রুজিরুটি অর্থাৎ সেই মৃৎশিল্পীরা কিন্তু যথেষ্ট চিন্তিত। দুর্গাপুজো, লক্ষ্মীপূজো ও কালীপুজো নিয়ে আশাবাদী ছিলেন কম হলেও বিক্রি হবে প্রতিমা। কিন্তু বিদ্যালয় না খুললে কি হবে ? এবছর সরস্বতী পুজো হচ্ছে ১৬ ফেব্রুয়ারি। সেই দিন পুজোর মুহূর্ত শুরু হচ্ছে সকাল ৬:৫৯ মিনিট থেকে বেলা ১২:৩৫ মিনিট পর্যন্ত। স্থিতিকাল ৫ ঘণ্টা ৩৬ মিনিট।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *