আজ থেকে মহারাষ্ট্রে শুরু ১৫ দিনের ১৪৪ ধারা

Mysepik Webdesk: করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে ভারতে। কিছুতেই বাগে আনা যাচ্ছে না সংক্রমণের মাত্রা। প্রতিদিনই প্রায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা রেকর্ড গড়ছে। দেশের মধ্যে সবচেয়ে করুণ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্রে। দেশের স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় শুধুমাত্র মহাৰাষ্ট্ৰেই নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ৬০ হাজার পেরিয়ে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বুধবার রাত আটটা থেকে গোটা মহারাষ্ট্রে লাগু হবে ১৪৪ ধারা। একথা জানিয়েছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। তিনি জানান, এটা কোনও লকডাউন নয়। এই পর্যায়ে হোটেল, রেস্তোরাঁ বন্ধ থাকলেও খোলা থাকবে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা। শুধুমাত্র অত্যাবশ্যক পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত বাস ও ট্রেন চলবে।

আরও পড়ুন: পাঁচ রাজ্যে রেকর্ড করোনা সংক্রমণের

উদ্ধব ঠাকরের কথায়, “করোনা সংক্রমণ রুখতে আমরা রাজ্যজুড়ে কড়া বিধিনিষেধ কার্যকর করতে চলেছি। বুধবার থেকে গোটা রাজ্যে ১৪৪ ধারা জারি করা হবে। এই পর্যায়কে লকডাউন হিসেবে গণ্য করা হবে না। শুধুমাত্র জরুরি পরিষেবার জন্য লোকাল ট্রেন এবং বাস চলবে। পেট্রল পাম্প এবং সেবির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং নির্মাণকাজ আগের মতোই চালু থাকবে। তবে কোনও হোটেল বা রেস্তোরাঁয় বসে আর খাওয়া যাবে না। শুধু খাবার কিনে নিয়ে ফায়ার যেতে হবে। হোম ডেলিভারি করা যাবে।” বেশ কিছু নিয়ম লাগু হয়েছে মহারাষ্ট্রের ১৪৪ ধারায়।

আরও পড়ুন: দেশে একদিনেই করোনা আক্রান্ত ১ লক্ষ ৬১ হাজারেরও বেশি

১) শুক্রবার রাত ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৭টা পর্যন্ত রাজ্যে লকডাউন থাকছে।
২) প্রতিদিন রাত ৮টা থেকে পরের দিন সকাল ৭টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি থাকছে।
৩) শপিং মল, সিনেমা হল, রেস্তোরাঁ, পানশালা, ধর্মীয় স্থান প্রভৃতি বন্ধ রাখা হবে।
৪) এক জায়গায় পাঁচজনের বেশি জমায়েত করা যাবে না।
৫) গণ পরিবহন ব্যাবস্থায় মোট ক্ষমতার সর্বোচ্ছ ৫০ শতাংশর বেশি যাত্রী তোলা যাবে না।
৬) হোম ডেলিভারির সুবিধা চালু থাকবে।
৭) স্বাস্থ্যবিধি মেনে যেকোনও ধরণের নির্মাণ কাজ চালু থাকবে।
৮) স্বাস্থ্যবিধি মেনে সিনেমার শুটিংয়ের কাজে ছাড়পত্র দেওয়া হবে।
৯) সবজির বাজারে ভিড় নিয়ন্ত্রণ করতে নতুন স্বাস্থ্যবিধি আরোপ করা হবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *