তৃণমূলের সংহতি যাত্রায় উপস্থিত হয়ে মহুয়া মৈত্রর মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করলেন শংকর সিংহ

TMC Nadia

Mysepik Webdesk: শান্তিপুর পৌরসভার অন্তর্গত ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূলের পক্ষ থেকে সংহতি যাত্রার আয়োজন করা হয়। বৃন্দাবন প্রামাণিক এবং পৌর প্রশাসক অজয়দের নেতৃত্বে এই আয়োজন হয়। এই যাত্রায় পা মিলিয়েছিলেন তৃণমূলের বর্ষীয়ান নেতা শংকর সিংহ। গতকাল সংহতি যাত্রায় বিপুল পরিমাণে তৃণমূল কর্মীদের ঢল চোখে পড়ে।

আরও পড়ুন: সোমবার থেকে পশ্চিমবঙ্গে প্রবীণ ব্যক্তিদের টিকা প্রদানের সম্ভাবনা কমলো

শারীরিক অসুস্থতার কারণে, বিগত বেশ কিছুদিন জেলার বিভিন্ন দলীয় কর্মসূচিতে খুব একটা লক্ষ্য করা যাচ্ছিল না শংকর সিংহকে। তবে গতকাল শান্তিপুরের সংহতি যাত্রায় পা মেলাতে দেখা গেলো তাকে। সংহতি যাত্রার শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে শংকর সিংহ জানান, বিগত দিনে অজয় দে এবং তার পরিবারের রাজনৈতিক ভূমিকা এবং ত্যাগ যথেষ্ট। তার সম্পর্কে জেলা সভাপতি হিসেবে মহুয়া মৈত্রর এ কথা বলা একদমই ঠিক হয়নি বলে তিনি ব্যক্তিগত মত পোষণ করেন। এবং উচ্চ নেত্রীর কাছে বিষয়টি জানিয়েছেন বলে জানান। তবে তিনি বলেন, এতে শান্তিপুরের তৃণমূল কর্মীদের কিছু এসে যায় না।

আরও পড়ুন: ব্রিগেড ভরাতে জেলার বিভিন্ন প্রান্তে মিছিল সিপিআইএমের

প্রসঙ্গত দুদিন আগে কল্যাণীর গয়েশপুরে নদিয়া জেলার তৃণমূলের সভাপতি মহুয়া মৈত্র শান্তিপুর প্রসঙ্গে মন্তব্য করেন, ” দুজনে মিলে, শান্তিপুরের সিটটা নষ্ট করেছে। একজন গিয়েছে! অন্যজন গেলে বাঁচি। তৃতীয় কাউকে নেতৃত্ব হিসেবে তুলে নিয়ে আসবো।” পৌর প্রশাসক অজয়দের সম্পর্কে বলেন, উনি কি এমন বড় নেতা! মাত্র তিন সপ্তাহে বাইরের একটা ছেলে, কংগ্রেসের টিকিটে হারিয়ে দিয়েছিল ২৫ বছরের বিধায়ক কে! এরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে নানান ধরণের পোস্ট দেখা যায়। শুধু তাই নয়, শাসক এবং বিরোধী দল গুলোর মধ্যে দিনভর আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে ওঠে এই বিষয়টি।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *