কোচ হিসাবে শাস্ত্রীর রেকর্ড ঈর্ষণীয়, টিম ইন্ডিয়ার নিয়মিত কোচিংয়ের দায়িত্ব পাওয়া সহজ হবে না দ্রাবিড়ের

Mysepik Webdesk: শ্রীলঙ্কা সফররত ভারতীয় দলের কোচ হতে পারেন প্রাক্তন অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড়। এই সিরিজটি যখন খেলা হবে, তখন ভারতীয় টেস্ট দল ইংল্যান্ডে থাকবে। দলের নিয়মিত কোচ রবি শাস্ত্রী সেই দলের সঙ্গে সেখানেই উপস্থিত থাকবেন। তাই একদিকে শাস্ত্রী, আরেকদিকে দ্রাবিড়কে রেখে দু’টি দল গড়ার প্রস্তুতি নিয়েছে বিসিসিআই। এর পরে ক্রিকেট অনুরাগীদের মধ্যে অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন যে, রবি শাস্ত্রীর জায়গায় রাহুল দ্রাবিড়কে টিম ইন্ডিয়ার নিয়মিত কোচিংয়ের দায়িত্ব দেওয়া উচিত কিনা।

আরও পড়ুন: কোভিড আক্রান্ত ‘উড়ন্ত শিখ’ মিলখা সিং

অনিল কুম্বলের জায়গায় ২০১৭-র জুলাইয়ে ভারতের প্রধান কোচ হিসাবে জায়গা পেয়েছিলেন রবি শাস্ত্রী। তার পর থেকে ভারতীয় দল ১৭৪ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে। এতে শাস্ত্রীর ছেলেরা জিতেছে ১১৪টিতে। অর্থাৎ, শাস্ত্রীর আমলে ভারতের সামগ্রিক সাফল্যের হার ৬৫%-এরও বেশি। রবি শাস্ত্রীর কোচিংয়ের অধীনে ভারতীয় দল ৩৮টি টেস্টের মধ্যে ২৩টিতে জিতেছে। সাফল্যের হার ৬০%। একইসঙ্গে ৭৬টি ওয়ানডেতে ৫১টি জিতেছে টিম ইন্ডিয়া। সাফল্যের হার ৬৭%। অন্যদিকে, টি-২০’র ৬০ ম্যাচের মধ্যে ৪০ জিতেছে ভারত। সাকসেস রেট ৬৬%। এর মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে দু-দু’বার টেস্ট সিরিজ জেতানো রবি শাস্ত্রীর কোচিং ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি। তাই কোচ হিসাবে সাফল্যের নিরিখে রবি শাস্ত্রীর রেকর্ড কিন্তু ঈর্ষণীয়।

আরও পড়ুন: নেপালে কোচিং থেকে আয়ের সমস্ত টাকা কোভিড চিকিৎসায় ব্যয়ের ঘোষণা তরুণ কোচ ইয়ান ল-র

এমনকী অনিল কুম্বলে ২০১৭ সালে কোচের পদ থেকে পদত্যাগ করার পরে রাহুল দ্রাবিড়কে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে, তিনি টিম ইন্ডিয়ার কোচ হবেন কিনা। রাবিড় জানিয়েছিলেন, তিনি পরিবারের সঙ্গে আরও বেশি সময় কাটাতে চান। এটি মাথায় রেখে দ্রাবিড় বেঙ্গালুরুতে জাতীয় ক্রিকেট একাডেমির (এনসিএ) প্রধানের পদও বহন করেছেন। এখন বড় প্রশ্ন হল, দ্রাবিড় কি এখন টিম ইন্ডিয়ার নিয়মিত কোচ হতে চাইবে?

আরও পড়ুন: প্রাক্তন ফুটবলার রাহুল কুমারের আকস্মিক প্রয়াণে ময়দান এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় শোকের ছায়া

২০১৭ সালে দলের কোচ হওয়া রবি শাস্ত্রী ২০১৯ সালে এক্সটেনশন পেয়েছিলেন। তাঁর মেয়াদ ২০২১ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত। এর আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ এবং টেস্ট সিরিজে দলের সঙ্গে থাকতে হবে তাঁকে। এই টুর্নামেন্ট কিংবা সিরিজে শাস্ত্রীর কোচিংয়ে দল কেমন পারফরম্যান্স করে, তার ওপর নির্ভর করবে এই মুম্বইকরের ভবিষ্যৎ বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল। এছাড়াও দেখতে হবে যে, শাস্ত্রী নিজে কোচ হিসাবে দায়িত্ব বজায় রাখতে চান কিনা।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *