স্বামীর মৃত্যুর পরও হার মানেন নি, দেশের সেবায় যোগ দিলেন ভারতীয় বায়ুসেনায়

Mysepik Webdesk: নিজে একজন আইনজীবী হয়েও বিয়ে করেছিলেন পেশায় একজন ভারতীয় বিমানবাহিনীর অফিসারকে। কিন্তু হটাৎ করে স্বামীর হার্ট অ্যাটাক হয়ে মৃত্যু হওয়ায় তিনি ভেঙে পড়েছিলেন। কিছুদিনের মধ্যেই অবশ্য তিনি নিজেকে সামলে নেন। স্থির করেন ছোট্ট ছেলেকে নিয়ে নিজের বাকি জীবনটা কাটিয়ে দেবেন দেশের সেবায়। সেইমতো তিনি দিল্লিতে বিমান বাহিনীর কমন এন্ট্রান্স টেস্টের জন্য আবেদন করেছিলেন। কিন্তু প্রথমবার সেই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হলেও পরবর্তী সময়ে তিনি ২০১৮ সালে আবার পরীক্ষা দেন এবং ভালো ফল করেন। দিনের বেলা আদালতে প্র‍্যাকটিস ও রাতে পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে অবশেষে সফল হন তিনি।

আরও পড়ুন: বছরের শেষ মন কী বাত অনুষ্ঠানে কী বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

Radha gets blue uniform by hard work and perseverance, fighting the  situation instead of breaking down with the death of her Air Force officer  husband | After the death of her husband,

জম্মুর বাসিন্দা ২৮ বছরের রাধা চারক ও তাঁর মৃত স্বামী বোটা সিংমানহাসের এটাই প্রকৃত ঘটনা। মানহাস বিমান বাহিনী, সিপিলের নন কমিশনড অফিসার ছিলেন। তবে বিয়ের কয়েক বছর পর তার স্বামী হার্ট অ্যাটাকে মারা যান। রাধা পেশায় একজন আইনজীবী। স্বামীর মৃত্যুর পরে রাধাকে উপ-পরিদর্শকের জন্য একটি পরীক্ষা দেওয়ার কথা থাকলেও তিনি পরীক্ষা না দিয়েই ফিরে এসেছিলেন। তারপরেই তাঁর জীবনের লক্ষ হয়, তাঁর স্বামী যে নীল রঙের পোশাক পরতেন, তিনিও তাই পরবেন। ২০১২ সালে, তিনি এসএসবিতে নির্বাচিত হয়েছিলেন এবং ২০২০ সালে হায়দরাবাদ এয়ারফোর্স একাডেমিতে প্রশিক্ষণের জন্য যান। এই বছরেই ১৮ ডিসেম্বর তার প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে। প্রথম পোস্টিং হয়েছে চন্ডিগড়ে। রাধার বাবা সুবেদার টিএস চাদক স্বাভাবিকভাবেই তাঁর মেয়েকে নিয়ে গর্বিত। তিনি জানান, মেয়ের কথা উঠলেই গর্বে তাঁর ভূক ভরে যায়।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *