চাকরির লোভে বাবার গলা কাটল ছেলে!

Murder

Mysepik Webdesk: বয়স ৩৫ পেরিয়েছে, কিন্তু চাকরি নেই। অবসরের আগে বাবার মৃত্যু ঘটলে তাঁর জায়গায় মিলবে চাকরি, এমনটাই ভেবেছিল বেকার যুবক। আর তাই বাবাকেই খুন করে ফেলেছে সে। তার বাবা ঝাড়খণ্ডের বরকাকানা জেলায় সেন্ট্রাল কোল ফিল্ডস লিমিটেডের কর্মী ছিলেন। তবে এই ঘটনার পর যুবকের চাকরি পাওয়া তো দূর, ঠাই হল শ্রীঘরে। তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের রামগড়ে।

আরও পড়ুন: হাথরসকাণ্ডের তদন্তে তৎপরতা বাড়াল সিবিআই

পুলিশ জানিয়েছে, বাবার চাকরিটা পাওয়ার জন্যই ছেলে বাবাকে খুন করেছে। মৃত ব্যক্তির নাম কৃষ্ণ রাম, ৫৫ বছর বয়স। তিনি রামগড় জেলার বরকাকানার সেন্ট্রাল ওয়ার্কশপের মূল নিরাপত্তারক্ষী ছিলেন। রামগড় জেলার বারখানাতে সংস্থার কোয়ার্টারেই ছেলেকে নিয়ে থাকতেন তিনি। সেখান থেকে বৃহস্পতিবার তাঁর মৃতদেহ গলা কাটা অবস্থায় উদ্ধার হয়। যেহেতু ওই সংস্থা সরকারের অধীনস্থ, তাই ওই যুবক জানত অবসরের আগে বাবা মারা গেলে সে চাকরি পাবে।

আরও পড়ুন: হিমাচলে করোনা রোগীদের শনাক্ত করতে ঘরে ঘরে যাবে ৮ হাজার দল

এলাকার সাব-ডিভিশনাল পুলিশ অফিসার প্রকাশ চন্দ্র মাহাতো শনিবার একটি প্রেস বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, প্রথমে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ দেখে মৃতদেহের পাশে একটি ছোট্ট ছুরি পড়ে রয়েছে। মৃত ও অভিযুক্তের মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। কৃষ্ণর ছেলে দাবি করে ঘটনার সময় সে ঘরে ছিল না। কেউ চুরি করতে এসে বাবাকে মেরে ফেলেছে। কিন্তু ঘর থেকে কোনও কিছুই চুরি হয়নি। তাছাড়া যুবকের কথায় অসঙ্গতি লক্ষ্য করা যায় এবং ঘটনার সময়ে সে কোথায় ছিল তার কোনও সাক্ষী সে দেখাতে পারেনি। এতেই সন্দেহ হয় পুলিশের।

জানা গিয়েছে, অবশেষে জেরার সামনে ভেঙে পড়ে ওই যুবক। সব স্বীকার করে নেয় সে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *