প্রয়াত হলেন ১৯৬০ রোম অলিম্পিকে ভারতীয় ফুটবল দলের সদস্য, বিশিষ্ট কোচ ও ফিফা রেফারি এস এস হাকিম

Mysepik Webdesk: প্রয়াত হলেন ১৯৬০ রোম অলিম্পিকে ভারতীয় ফুটবল দলের সদস্য বিশিষ্ট কোচ এবং ফিফা রেফারি এস এস হাকিম। রবিবার গুলবর্গার একটি হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৮২ বছর বয়সি এই কিংবদন্তি ফুটবল ব্যক্তিত্বের। তাঁর পরিবার হাকিমের মৃত্যুর খবর জানিয়েছে। সম্প্রতি তিনি হার্ট অ্যাটাকের শিকার হন। এরপর তাঁকে গুলবর্গার একটি হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয়। সেখানেই মৃত্যুর সঙ্গে লড়াইয়ে হার মানলেন তিনি।

আরও পড়ুন: অনূর্ধ্ব-২০ বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে রুপো ভারতের অমিত খাত্রির

এস এস হাকিম প্রায় পাঁচ দশক ধরে ভারতীয় ফুটবলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। খেলোয়াড়ি জীবন শেষ করে তিনি কোচ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। দ্রোণাচার্য পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন তিনি। ১৯৮২-তে তিনি এশিয়ান গেমসের সময় পি কে ব্যানার্জির সহকারী কোচ হিসাবে নিযুক্ত ছিলেন। পরে তিনি মারদেকা কাপের সময় জাতীয় দলের প্রধান কোচ হন। ঘরোয়া পর্যায়ে কোচ হিসেবে এস এস হাকিমের পারফরম্যান্স ছিল প্রশংসনীয়। তাঁর আমলে মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা, যারা এখন মাহিন্দ্রা ইউনাইটেড নামে পরিচিত, ১৯৮৮-তে ইস্টবেঙ্গল দলকে হারিয়ে ডুরান্ড কাপ শিরোপা জিতেছিল। এছাড়াও তিনি সালগাওকরের কোচও ছিলেন।

আরও পড়ুন: রাজ্য হকি দলের কোচ নির্বাচিত মিজোরামের প্রথম অলিম্পিয়ান মিস লালরেমসিয়ামি

শুধু তাই নয়, হাকিম ফিফার আন্তর্জাতিক ম্যাচে রেফারিও ছিলেন। ফুটবলে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ, তিনি ধ্যানচাঁদ পুরস্কারে সম্মানিত হন। এছাড়াও স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার রিজিওনাল ডিরেক্টরও ছিলেন হাকিম। ভারতীয় ফুটবল দলের প্রাক্তন কোচ এবং দ্রোণাচার্য পুরস্কারপ্রাপ্ত শাব্বির আলি এস এস হাকিমের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি তাঁর শোকবার্তায় বলেন, “এস এস হাকিম একজন দুর্দান্ত ফুটবলার এবং কিংবদন্তি কোচ এস এ রহিমের পুত্র। আমি তাঁকে তাঁর খেলোয়াড়ি জীবন থেকেই চিনি। তিনি একজন দারুণ ক্রীড়া প্রশাসক এবং ম্যাচ রেফারিও ছিলেন। তাঁর চলে যাওয়া হায়দরাবাদ ফুটবলের জন্যও বড় ক্ষতি।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *