বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের জন্য লাগু কঠোর কোভিড প্রোটোকল

Mysepik Webdesk: আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল শুরু হতে বাকি একমাসের কিছু বেশি সময়। ১৮ থেকে ২২ জুন ইংল্যান্ডের সাউথাম্পটনে ভারত ও নিউজিল্যান্ড মুখোমুখি হবে। করোনা মহামারির কথা মাথায় রেখে উভয় দেশের ক্রিকেট বোর্ডের পাশাপাশি আইসিসি এবং ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) খেলোয়াড়দের নিরাপদে রাখার প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে।

আরও পড়ুন: ফর্মুলা ওয়ানে রেকর্ড হ্যামিল্টনের

অনেক খেলোয়াড়, কোচ এবং সাপোর্ট স্টাফ করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর আইপিএল স্থগিত হয়ে যায়। এ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের সকল আয়োজক এবং অংশগ্রহণকারীরা তাঁদের তরফ থেকে কোনও প্রকার কমতি আসতে দেবেন না। আইসিসি বিসিসিআই এবং নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডকে ইংল্যান্ডে করোনার প্রোটোকল বিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করার নির্দেশ দিয়েছে। ইংল্যান্ডে রওনা হওয়ার আগে এই দুই বোর্ডকে নিশ্চিত হতে হবে যে, তাদের খেলোয়াড় বা সাপোর্ট স্টাফদের কারও কারও করোনার লক্ষণ নেই। এর জন্য টেস্ট, আইসোলেশন সহ সমস্ত সতর্কতা অবলম্বন করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: মাদ্রিদ ওপেন চ্যাম্পিয়ন জাভেরেভ

India retain ICC Test Championship mace

সূত্রমতে, ইংল্যান্ড রওনা হওয়ার আগে মুম্বইয়ের ক্রিকেটার সহ সাপোর্ট স্টাফ, কোচদের বায়ো বলয়ে রাখার পরিকল্পনা করেছে বিসিসিআই। দলের সমস্ত খেলোয়াড়, কোচ এবং সাপোর্ট স্টাফরা ১৯ মে মুম্বইয়ে উপস্থিত হবেন। শুরুতে, কেউ একে অপরের সঙ্গে দেখা করবে ননা এবং আইসোলেটেড হয়ে যাবেন। সাত দিনের আইসোলেশনে দু’দিন অন্তর প্রত্যেকের কোভিড টেস্ট করা হবে। কারোর রিপোর্ট পজিটিভ এলে তাঁকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। ৭ দিনের মধ্যে সব রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরেই সমস্ত ক্রিকেটারকে একত্রিত করা হবে।

তাছাড়াও হোটেল স্টাফ সহ অন্যান্য স্টাফকে খেলোয়াড়দের মুম্বই প্রবেশের আগে এক সপ্তাহের জন্য আলাদা রাখা হবে। প্রতি দুই দিন পর পর তাঁদের কোভিড টেস্ট করা হবে। অন্যদিকে, ক্রিকেটারদের মুম্বইয়ে পৌঁছনোর ৪৮ ঘণ্টা আগে করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট জমা দিতে হবে। নেগেটিভ হওয়ার পরেই তাঁরা হোটেলে প্রবেশ করতে সক্ষম হবেন, যেখানে তাঁদের এক সপ্তাহের পৃথকীকরণে জন্য থাকতে হবে। হোটেলে কোয়ারেন্টাইন থাকার সময় তিনবার করোনা টেস্ট হবে। প্রথম পরীক্ষাটি প্রথম দিন, দ্বিতীয় পরীক্ষাটি তৃতীয় দিনে এবং তৃতীয় পরীক্ষাটি ষষ্ঠ দিনে হবে। সমস্ত টেস্ট নেতিবাচক হলেই তাঁরা ইংল্যান্ডের উদ্দেশ্যে রওনা হতে পারবেন। ভারতীয় দল চার্টার্ড বিমানে ইংল্যান্ড যাবে। সেই কারণে চার্টার্ড বিমানের কর্মচারীদেরও এক সপ্তাহ আগে থেকে আইসোলেশনে থাকতে হবে। তাঁদেরও কোভিড টেস্ট হবে।

আরও পড়ুন: মাদ্রিদ ওপেন চ্যাম্পিয়ন জাভেরেভ

এখানেই শেষ নয়, ইংল্যান্ডে পৌঁছেও ভারত ও নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়দের হোটেলে ১০ দিন কোয়ারেন্টাইন থাকতে হবে। সেখানেও দুই দিন অন্তর হবে কোভিড টেস্ট। রিপোর্ট নেগেটিভ এলেই অনুশীলনে অনুমতি পাবেন ক্রিকেটাররা। কেবল তা-ই নয়, খেলোয়াড়দের ইংল্যান্ড আসার আগে ১০ দিনের জন্য হোটেল কর্মী সহ খেলোয়াড়দের দেখাশোনাতে নিযুক্ত ব্যক্তিরাও পৃথকীকরণে থাকবেন।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *