চালু হল স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড: কত শতাংশ সুদ, কীভাবে আবেদন করবেন জানুন বিস্তারিত

Mysepik Webdesk: আজ থেকে অর্থাৎ ১ জুলাই বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যে চালু হল স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড। বুধবার নবান্ন থেকে একটি সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই কার্ডের উদ্বোধন করেন। তিনি জানান, দশম শ্রেণি থেকে স্নাতকোত্তর পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীটা এই কার্ডের মাধ্যমে লোন নিয়ে তাদের পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারবে। এর ফলে টাকার অভাবে রাজ্যে কারোরই পড়াশোনা বন্ধ হবে না। পরবর্তী সময়ে চাকরিক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত হলে সহজ ইএমআই-এর মাধ্যমে এই টাকা শোধ দেওয়া যাবে। কীভাবে এই কার্ডের আবেদন করা যাবে, কারা আবেদন করতে পারবেন, কত শতাংশ সুদ দিয়ে এই কার্ডের লোন শোধ করা যাবে, আসুন এই কার্ডের বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

আরও পড়ুন: ফের উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে স্থগিতাদেশ, কী হবে চাকরিপ্রার্থীদের ভবিষ্যৎ?

বুধবার স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের উদ্বোধন করার সময় মুখ্যমন্ত্রী জানান, স্নাতক ও স্নাতকোত্তর, ডাক্তারি, আইএএস, আইপিএস, ডব্লিউবিসিএস, ডিপ্লোমা পড়ার জন্য ছাত্ররা যে কোনও সময় এই ঋণ পেতে পারে। পাশাপাশি ব্যাংক, রেলওয়ে, স্টাফ-সিলেকশন কমিশন বা অন্য কোনও পেশাদার পাঠ্যক্রম এর জন্যেও এই কার্ডের মাধ্যমে ঋণ নেওয়া যাবে। তবে শর্ত একটাই, কোনও বৈধ প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনা করলে তবেই ঋণ পাওয়া যাবে। পড়াশোনার খরচ জোগাতে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে সর্বোচ্চ ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ নেওয়া যাবে। সর্বোচ্চ ৪০ বছর পর্যন্ত বয়সীরাই আবেদন করতে পারবে। সুদের হার ধার্য করা হয়েছে ৪ শতাংশ। এই হার লোনের কিস্তি শোধ করার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একই থাকবে। ঋণের মধ্যেই একটি জীবন বিমার সুবিধা থাকবে। সেই বিমার প্রিমিয়াম শিক্ষার্থীর লোনের থেকেই কেটে নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড লিঙ্ক করার মেয়াদ বাড়ল ৩ মাস

ঋণ নেওয়ার শর্ত অনুযায়ী, অন্তত ১০ বছর ধরে ঋণগ্রহীতাকে পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা হতে হবে। ঋণের মেয়াদ হবে সর্বোচ্চ ১৫ বছর। আবেদন করা যাবে www.wb.gov.in ওয়েবসাইট থেকে। এছাড়াও কার্ডের বিষয়ে বিস্তারিত জানতে 18001028014 এই টোল ফ্রি নম্বরে ফোনে করা যাবে। পড়ুয়াদের লোনের বিষয়ে গ্যারেন্টের থাকবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। লোন দেবে যে কোনও রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক, বেসরকারি ব্যাঙ্ক এবং কিছু আঞ্চলিক গ্রামীণ ব্যাঙ্ক। লোন দেওয়ার ক্ষেত্রে পড়ুয়াদের ব্যাংকগুলি ছাত্র-ছাত্রীর পরিবারের সম্পত্তির পরিমান, পরিবারের সিকিউরিটি ডিপোজিট আছে কিনা, অবিভাবকরা কীভাবে লোন শোধ করবেন, এইসব বিষয়গুলি সম্পর্কে একটি প্রশ্নও করতে পারবে না।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *