বিশ্ব মিডিয়ায় বন্দিত টিম ইন্ডিয়া

Mysepik Webdesk: ব্রিসবেন টেস্টে টিম ইন্ডিয়া অস্ট্রেলিয়াকে ৩ উইকেটে হারিয়ে চার ম্যাচের সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছে। এটি গাব্বার মাঠে ভারতের প্রথম জয় এবং ৩২ বছর পর অস্ট্রেলিয়ার প্রথম পরাজয়। সিরিজের আগে টিম ইন্ডিয়াকে খুব একটা গুরুত্ব দেয়নি। তবে গাব্বায় রাহানে-ব্রিগেডের ঐতিহাসিক জয়ের পরে সেই অজি মিডিয়া ইউটার্ন নিয়ে ভারতের খেলোয়াড়দের প্রশংসা করেছে। আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়াসহ বিশ্বের অনেক দেশেই ভারতের জয় এবং দল দু’টিকেই দুর্দান্ত বলে ঢালাও প্রশংসা করা হচ্ছে। এমনকী আমেরিকান সংবাদপত্র দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস লিখেছে যে, অস্ট্রেলিয়ায় জনতার দ্বারা নির্যাতন করা সত্ত্বেও টিম ইন্ডিয়া আয়োজক দেশের দর্পচূর্ণ করেছে। বাকি মিডিয়া যা বলেছে, পড়ুন…

১) অস্ট্রেলীয় মিডিয়া

দ্য অস্ট্রেলিয়ান লিখেছে, “টিম ইন্ডিয়ার ঐন্দ্রজালিক ঝড় গাব্বার দুর্গ ধ্বংস করেছে। সংগ্রামী ও আহত দলটি, তারকা খেলোয়াড় ছাড়াই পুরো শক্তির অস্ট্রেলিয়ান দলকে পরাজিত করেছে। আসলে, অস্ট্রেলিয়ান দল ১৯৮৮ সালের নভেম্বরে গাব্বার মাঠে হেরেছিল। তখন ওয়েস্ট ইন্ডিজের নয় উইকেটে হারিয়েছিল।”

আরও পড়ুন: রূপকথা গড়ে বদ্ধভূমি গাব্বায় সিরিজ জয় ভারতের

সিডনি মর্নিং হেরাল্ড ভারতীয় স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার জন্য অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক টিম পেইনের সমালোচনা করেছে। তারা লিখেছে, ”সিডনি টেস্টে পেইনকে স্লেজিংয়ের পর মঙ্গলবার বেন স্টোকসের মতো দুর্দান্ত উত্তর দিয়েছিলেন ঋষভ পন্থ। এটি ভারতকে চতুর্থ টেস্টে তিন উইকেটে জিততে সহায়তা করেছিল। পন্থের ইনিংসটি গাব্বায় অস্ট্রেলিয়ার ৩৩ বছরের পুরনো অজেয় দুর্গকে ভেঙে দিয়েছে।’ উল্লেখ্য, টিম পেইন সিরিজের তৃতীয় টেস্টে আশ্বিনের সঙ্গে বাক্‌যুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছিলেন। আশ্বিনকে গাব্বায় দেখে নেবেন, এমন কথা হুমকির সুরে বলেছিলেন পেইন।

আরও পড়ুন: ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের জন্য টিম ইন্ডিয়ার জন্য ৫ কোটির টিম বোনাস দেবে বিসিসিআই

অস্ট্রেলিয়া সফর সম্প্রচারকারী চ্যানেল সেভেন (7) স্পোর্টস ঋষভ পন্থের বিজয়ী উইনিং বাউন্ডারির ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছে। তারা লিখেছে, “তিন দশক পরে প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়ান দল গাব্বায় হেরেছে। এর অর্থ হল সমস্ত প্রতিকূলতার পরেও ভারত সিরিজটি ২-১ ব্যবধানে জিতেছে।

অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইট cricket.com.au লিখেছে, ‘ভারতীয় আবেগ! ক্লাসিক টেস্ট জয়ের সঙ্গে অদম্য দুর্গটি গাব্বায় পতিত হয়েছিল। এটি ভারতের বিদেশ সফরগুলির মধ্যে সবচেয়ে কঠিন ছিল। তারা কঠিন পরিস্থিতিতে জয়ের পরে মুকুট জিতে নিয়েছে।

২) আমেরিকান মিডিয়া

দ্য নিউইয়র্ক টাইমস লিখেছে, “সিরিজটিতে ভারতীয় দলের অনেক খেলোয়াড় আহত হয়েছিল। দলটি অস্ট্রেলিয়ায় বর্ণবাদী মন্তব্য এবং অস্ট্রেলিয়ান সমর্থকদের আপত্তিজনক বাক্যবাণের স্বীকার হয়েছিল। তা সত্ত্বেও নিজের ঘরে অস্ট্রেলিয়াকে পরাজিত করেছে ভারত। এটি ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসের বৃহত্তম জয়।”

আরও পড়ুন: ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতীয় দল ঘোষণা

দ্য গার্ডিয়ান-এর তরফে ক্রিকেট-লেখিয়ে জিওফ লেমন লিখেছেন, ”ভারতের খুনে মনোভাব তাদের অস্ট্রেলিয়ায় ঐতিহাসিক জয়ের দিকে ঠেলে দিয়েছে।

ফক্সস্পোর্ট ওয়েবসাইটটি লিখেছে, “যদি আপনি চোটগ্রস্ত থাকেন তবে আতঙ্কিত হবেন না, কারণ আপনি একা নন… তবে টিম ইন্ডিয়া বর্ডার-গাভাসকর সিরিজ জিতেছে। এটি ভারতের টেস্ট ইতিহাসের অন্যতম দর্শনীয় জয়। সিরিজের অ্যাডিলেড টেস্টে লজ্জাজনক পরাজয়ের পরে টিম ইন্ডিয়া প্রত্যাবর্তনের যে সামর্থ্য দেখিয়েছে, তাতে করে তারা এখন আনন্দ উদ্‌যাপন করছে। এই পরাজয় সবসময় আমাদের স্মৃতিতে থাকবে।”

৩) ব্রিটিশ মিডিয়া

ডেইলি টেলিগ্রাফ লিখেছিল, “কোনও অজুহাত নেই, কোনও উত্তর নেই। অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে খারাপ পারফরম্যান্স। সত্য এটাই যে, অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে একটি ঐতিহাসিক টেস্ট সিরিজ শেষ হয়েছে। তারা সেরা দল নিয়েই নেমেছিল। তবে নেট বোলারদের সঙ্গে মাঠে লড়াই করে যাওয়া টিম ইন্ডিয়ার কাছে পরাজিত হয়েছিল।

৪) পাকিস্তানি মিডিয়া

পাকিস্তানি নিউজ পেপার দ্য ডন লিখেছে, “স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে পুরোপুরি বিরক্ত করেছে টিম ইন্ডিয়া। ভারতের এই ঐতিহাসিক বিজয়টি কয়েক দশক ধরে মনে থাকবে। ব্রিসবেনের গাব্বায় টেস্টের শেষ দিনে ৩২৪ রান তাড়া করে টিম ইন্ডিয়া। এর সঙ্গেই তারা অস্ট্রেলিয়ায় দ্বিতীয় টেস্ট সিরিজ জিতেছিল।

Facebook Twitter Email Whatsapp

One comment

  • প্রত্যেকটা অক্ষর উপভোগ করলাম। ❤️

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *