ভুয়ো ভোটারকে ঘিরে অশান্তি খালসা স্কুলে

Mysepik Webdesk: হাইভোল্টেজ কেন্দ্র ভবানীপুরে চলছে উপনির্বাচন, যেখানে তৃণমূল প্রার্থী খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল। অন্যদিকে বামেদের প্রার্থী শ্রীজীব বিশ্বাস। বিজেপি ও বামেরা সরাসরি চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে শাসকদলকে। নির্বাচন কমিশন জানাচ্ছে, ভবানীপুর কেন্দ্রে এখনও পর্যন্ত ভোট পড়েছে ২১.৭৩ শতাংশ। এদিকে ভুয়ো ভোটারকে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা ছড়িয়েছে ভবানীপুরের খালসা হাইস্কুলে।

আরও পড়ুন: ভোটারদের বিরক্ত করার অভিযোগ প্রিয়াঙ্কার বিরুদ্ধে, কমিশনের দ্বারস্থ তৃণমূল

৭০ নম্বর ওয়ার্ডের শরৎ বোস রোডের একটি বুথে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ ওঠে। বিজেপির অভিযোগ, মাস্ক পরে দু’জন ভুয়ো ভোটার ভোট দিতে ঢুকেছিল। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন বিজেপি নেতা কল্যাণ চৌবে ও সিপিআইএম প্রার্থী শ্রীজীব বিশ্বাস। বিজেপির অভিযোগ, এক যুবক কোনওরকম কাগজপত্র ছাড়াই ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে ঢুকে ভোট দিচ্ছিলেন। এমনকি, ওই অভিযুক্তকে হাতেনাতে ধরা হয়েছে বলেও দাবি করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, ওই দু’টি যুবককে মারধরও করা হয়। ওই দুজনের কারোর কাছে ভোট দেওয়ার বৈধ কাগজ ছিল না।

আরও পড়ুন: ‘মা কে জেতান’, ফেসবুকে কাতর আর্তি যুব তৃণমূল নেতা দেবাংশুর

যদিও তৃণমূলের তরফে সেই অভিযোগ উড়িয়ে দেওয়া হয়।পাল্টা তৃণমূলের দাবি, বিজেপি অশান্তি পাকাতেই এই পরিস্থিতি তৈরি করেছে বিজেপি। যে ছেলেটিকে মারধর করা হয়েছে, বিজেপির লোকজন দীর্ঘক্ষণ ধরে তাঁকে আটকে রাখে। এর সঙ্গে ভুয়ো ভোটারের কোনও সম্পর্কই নেই। সকাল থেকে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটদান পর্ব চলছিল। বিজেপির প্রার্থী ঢুকতেই গোলমাল শুরু হয়। স্থানীয়দের অভিযোগ, বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল অতিরিক্ত গাড়ি এবং বহিরাগতদের নিয়ে এলাকায় ঘুরছেন। ফলে তাঁদের ভোট দিতে অসুবিধা হতে। পাল্টা বিজেপি প্রার্থীর অভিযোগ, বুথ জ্যাম করে ছাপ্পা ভোট চলছে। মদন মিত্রর এলাকায় ভুয়ো ভোট চলছে। ভুয়ো ভোটার নিয়ে উত্তেজনার পরই খালসা হাইস্কুলে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়। ঘটনাস্থলে পৌঁছল জয়েন্ট সিপি নীলাঞ্জন বিশ্বাস। এ ছাড়াও ঘটনাস্থলে যান কেন্দ্রীয় বাহিনীর ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকও।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *