হাওড়ার শরৎ সদনে চলছে বইমেলা, বিক্রিতে ভাটার কথা শোনালেন প্রকাশকরা

Book Fair

দীপান্বিতা হাজরা

সরকারি উদ্যোগে হাওড়ার শরৎ সদনে ২৬ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে হাওড়া বইমেলা। চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। ছোট বড় মিলিয়ে ষাট থেকে সত্তরটি প্রকাশনার বইয়ের স্টলের সমাহার ঘটেছে শরৎ সদনে। বইমেলায় ইতিউতি কিছু পাঠক চোখে পড়লেও বেশিরভাগই জেলার বিভিন্ন প্রান্তের লাইব্রেরি থেকে আগত লাইব্রেরিয়ান এবং লাইব্রেরির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত মানুষদেরই দেখা গেল বই কিনতে।

আরও পড়ুন: আগামী সপ্তাহেই রাজ্যে অমিত শাহ

কেমন হচ্ছে বইমেলার বিক্রি? জানাতে গিয়ে হতাশা ফুটে উঠল ‘কলেজ স্ট্রিট অ্যাসোসিয়েশন’ প্রকাশনার প্রবীর মৈশালের কণ্ঠে। তিনি বললেন যে, মানুষের মধ্যে বই সচেতনতা কমে যাচ্ছে। যাঁরা প্রধানত বই কিনতে আসছেন, বেশিরভাগই লাইব্রেরির সঙ্গে সম্পর্ক যুক্ত মানুষ। সাধারণ মানুষ বইমুখি আর তেমন হচ্ছেন না। এর কারণ হিসাবে উনি করোনা মহামারি অনেকাংশে দায়ী করলেন।

আবার ‘ছায়া’ পাবলিকেশনের অন্যতম সদস্য স্বপন বিশ্বাসের গলায় শোনা গেল অন্য সুর। মোবাইল, সোশ্যাল মিডিয়ার প্রতি আগ্রহই মানুষকে ক্রমশ বইবিমুখ করছে। খেদ শোনা গেল পিডিএফ, ই-বুকের সম্বন্ধেও।

আরও পড়ুন: ‘কেন্দ্রকে বাদ দিয়ে রাজ্যের সার্বিক উন্নতি হয় না’, দিল্লির বিমানে ওঠার আগে জানালেন রাজীব

তবে এর মধ্যে আশার কথাও শোনা গেল তাঁদের মুখে। বাঁকুড়া, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা, মেদিনীপুর বইমেলাতে যথেষ্ট বিক্রি হয়েছে বলেই জানালেন তাঁরা। এই আশাটুকুই ভরসা করে বিভিন্ন জেলায় জেলায় সফল হয়ে উঠুক সরকারি উদ্যোগের বইমেলা। নতুন বইয়ের গন্ধে ভরে উঠুক এই প্রজন্মের ছেলেবেলা থেকে বড়বেলা। বই হয়ে উঠুক বন্ধুত্বের শেষ সম্বল।

ছবি: প্রতিবেদক

Facebook Twitter Email Whatsapp

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *