স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে রাজ্যকে ৪ হাজার কোটি টাকারও বেশি সাহায্য কেন্দ্রের

Mysepik Webdesk: করোনাভাইরাস ওলোটপালোট করে দিয়েছে প্রায় সবকিছুই। এই পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশি যা প্রয়োজন হয়ে পড়েছে, তা হল স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর। এবার দেশের রাজ্যগুলির সুষ্ঠু পরিষেবা আরও উন্নতি করার লক্ষে বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সেই প্যাকেজ অনুযায়ী কেন্দ্রের পক্ষ থেকে দেশের প্রতিটি রাজ্যকে একটি নির্দিষ্ট পরিমান আর্থিক সাহায্য করা হচ্ছে। সেই বরাদ্দ অর্থের পরিমান ৭০ হাজার ৫১ কোটি টাকা। এই টাকা থেকে পশ্চিমবঙ্গ পেতে চলেছে প্রায় ৪ হাজার ৪০২ কোটি টাকা।

আরও পড়ুন: মর্মান্তিক! দিল্লির বহুতল ভেঙে মৃত দুই শিশু

কেন্দ্রের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী চার বছরের মধ্যে স্বাস্থ্যখাতে এই পরিমান টাকা প্রতিটি রাজ্যকে খরচ করতে হবে। রাজ্যের প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলিতে ন্যূনতম পাঁচটি শয্যার ব্যবস্থা রাখতে হবে। পাশাপাশি ব্যবস্থা রাখতে হবে পর্যাপ্ত পরিমান অক্সিজেন ও অ্যাম্বুলেন্সের। অর্থদপ্তরের এক আধিকারিক জানান, এতদিন পর্যন্ত পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতরের জন্য অর্থ বরাদ্দ করত কেন্দ্র। কিন্তু করোনা সংক্রমণে গোটা দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার যে বেহাল দশা সামনে এসে, সেই দশা কাটতেই কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ।

আরও পড়ুন: অভিষেকের মিছিলে নিষেধাজ্ঞা ত্রিপুরা পুলিশের

কীভাবে খরচ করা হবে এই অর্থ, ইতিমধ্যেই তার একটি ব্লুএপ্ৰিন্ট তৈরি করেছে কেন্দ্র। জানা গিয়েছে, ১,৩০০ স্বাস্থ্য কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে। এইসব কেন্দ্রে অন্তত পাঁচটি করে শয্যার পাসাপাসি রাখতে হবে সংক্রামক রোগীদের চিকিৎসার ব্যবস্থা। সংশ্লিষ্ট জেলাশাসক ও বিডিওদের তত্ত্বাবধানে সরকারি জমিতে নতুন করে এগুলি গড়ে তোলা হবে। কল্যাণীর জিনোম সিকোয়েন্স ল্যাবরেটরির মতো একটি অত্যাধুনিক পরীক্ষাগার গড়ে তোলা হবে। এছাড়াও প্রতিটি ব্লক হাসপাতালে অন্তত দু’টি করে অ্যাম্বুল্যান্স এবং তিনটি প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র পিছু একটি করে অ্যাম্বুল্যান্স কেনা হবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *