যশ মোকাবিলায় উপান্নে খোলা হল কন্ট্রোল রুম, নজরদারি করবেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী

Mysepik Webdesk: ভয়ঙ্কর শক্তি নিয়ে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘যশ’। যশের মোকাবিলায় এবার কন্ট্রোল রুম খোলা হল নবান্নে পাশে উপান্নে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, আগামী ২৫ এবং ২৫ মে রাতে তিনি সেখানে স্বয়ং উপস্থিত থেকে ঝড়ের পরিস্থিতির ওপর নজর রাখবেন। প্রসঙ্গত, আগামী ২৫ এবং ২৫ মে এই দু’দিন পশ্চিমবঙ্গ এবং ওড়িশার উপকূলে তাণ্ডবলীলা চালাতে পারে যশ, এমনটাই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

আরও পড়ুন: ভোকাল কর্ডে টিউমার, শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি মদন মিত্রর

এদিকে সাইক্লোন মোকাবিলায় একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে রাজ্য সরকার। ইতিমধ্যেই দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপ, সাগর, বাসন্তী, গোসাবা এবং ডায়মন্ড হারবারে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী (এনডিআরএফ) পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও নামখানা, মথুরাপুর, পাথরপ্রতিমায় পাঠানো হয়েছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। উত্তর ২৪ পরগনার হিঙ্গলগঞ্জ ও হাসনাবাদে এবং ব্যারাকপুরে এসডিআরএফ টিম মোতায়েন রাখা হয়েছে। ২০টি স্যাটেলাইট ফোন এবং ২৫টি ড্রোনের মাধ্যমে চালানো হবে নজরদারি। বেশি পরিমান ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে এমন এলাকায় ইতিমধ্যেই পৌঁছে দেওয়া হয়েছে ত্রিপল, সাবান, চাল, ডাল, বেবিফুড।

আরও পড়ুন: ‘দিদি ক্ষমা করুন’, তৃণমূলে ফিরতে চেয়ে মমতাকে খোলা চিঠি সোনালির

এছাড়াও উপকূলবর্তী এলাকার ৩ লক্ষ মানুষের জন্য ১১৫টি আয়লা সেন্টার এবং ২৫০টি আইসিডিএস স্কুলে থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেখানকার হাসপাতালগুলিকে বাড়তি বেড ও ওষুধের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে স্থানীয় প্রশাসনকে। সংশ্লিষ্ট সমস্ত দফতরের সরকারি কর্মীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। সতর্ক করা হয়েছে ট্র্যাফিক বিভাগকেও। প্রস্তুত রাখা হয়েছে অত্যাধুনিক গাছ কাটার মেশিন। ঝড়ের তান্ডবের শেষে বিদ্যুত সরবরাহ ব্যবস্থা দ্রুত স্বাভাবিক করার জন্য প্রায় ৫০ হাজার বিদ্যুতের খুঁটি মজুত রাখা হয়েছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *