জানুয়ারির মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে এবং মার্চের মধ্যে সারা ভারতে পৌঁছে যাবে করোনার ভ্যাকসিন

Mysepik Webdesk: ভারতের তৈরি করোনার ভ্যাকসিন ‘কোভ্যাকসিন’ তৃতীয় দফার ট্রায়ালের পরই শুরু হয়ে যাবে বাণিজ্যিক উৎপাদন। আর সেই ভ্যাকসিন প্রথম পর্যায়ে আরও কয়েকটি রাজ্যের পাশাপাশি জানুয়ারির মধ্যে পৌঁছে যাবে পশ্চিমবঙ্গেও। একথা নিশ্চিত করেছেন নাইসেডের ডিরেক্টর শান্তা দত্ত। তিনি জানিয়েছেন, আগামী সেপ্টেম্বর মাসেই তৃতীয় দফার পরীক্ষা শুরু হয়ে যাবে যেখানে পশ্চিমবঙ্গ থেকে অন্তত ১ লক্ষ মানুষ অংশগ্রহণ করবেন।

আরও পড়ুন: এখনও বেঁচে আছে মনুষ্যত্ব, বিমানে করে পরিযায়ী শ্রমিকদের কাজে ফেরাচ্ছেন মালিক

করোনা রুখতে এখন বিশ্বজুড়ে প্রয়োজন একটাই হাতিয়ার আর সেটা হল ভ্যাকসিন। ইতিমধ্যেই রাশিয়া সেই ভ্যাকসিন আবিষ্কার করার দাবি করলেও তা বাণিজ্যিকভাবে এখনও বাজারে এসে পৌঁছায়নি। পাশাপাশি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা রাশিয়ার ভ্যাকসিনকে এখনও অনুমোদন করেনি। তবে ICMR জানিয়েছে, ভারতের তৈরি ‘কোভ্যাকসিন’ ইতিমধ্যেই প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে পরীক্ষায় সফলভাবে উত্তীর্ণ হয়েছে। তৃতীয় দফার পরীক্ষাতেও সেটি সফলভাবে উত্তীর্ণ হয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন গবেষকরা।

আরও পড়ুন: আকাঙ্ক্ষা শর্মা খুনের ঘটনায় উদয়ন দাসকে যাবজ্জীবন সাজা

এই প্রসঙ্গে শান্ত দত্ত জানিয়েছেন, ‘আগামী সেপ্টেম্বরে পশ্চিমবঙ্গ-সহ মোট পাঁচটি রাজ্যে ‘কোভ্যাকসিন’-এর তৃতীয় দফার পরীক্ষা হবে। নিয়ম অনুযায়ী তৃতীয় দফার ফল বিশ্লেষণ করতে অন্তত ৬ মাস অপেক্ষা করতে হয়। তবে বিশেষ ক্ষেত্রে জরুরি পরিস্থিতি বিবেচনা করে WHO ৪ মাসের মধ্যে ভ্যাকসিন তৈরির অনুমতি দেবে বলে আমরা আশাবাদী। সেক্ষেত্রে জানুয়ারিতে পশ্চিমবঙ্গ-সহ একাধিক রাজ্যের হাতে আসবে এই ভ্যাকসিন। মার্চের মধ্যে গোটা দেশে পাওয়া যাবে করোনার ভ্যাকসিন।’ আর ভ্যাকসিন একবার হাতে এসে পৌঁছালে যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে টিকাকরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *