পুজোর পরই স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের, চলছে প্রস্তুতি

Mysepik Webdesk: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই ঘোষণা করেছিলেন, পুজোর পর এক দিন অন্তর স্কুল-কলেজ খোলা নিয়ে ভাবনা চিন্তা করা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী মঙ্গলবার জানিয়েছেন, পুজোর পর স্কুল খোলার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। কোনও স্কুলে একেকটি ক্লাসকে সোম-বুধ-শুক্র এবং মঙ্গল-বৃহস্পতি-শনিতে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। কোনও স্কুল আবার ক্লাসগুলিকে একই দিনে দু’ভাগে ভেঙে পড়াশোনা চালাচ্ছে। ক্লাস টেন ও টেন প্লাস টু-র সিলেবাস ৩০ শতাংশ কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। সেই সিলেবাসকে দু’ভাগে ভাগ করা হয়েছে। প্রথম ভাগের জন্য পরীক্ষা হবে ডিসেম্বরে। দ্বিতীয় ভাগের জন্য পরীক্ষা হবে আগামী বছর মার্চে। তার আগে করোনার তৃতীয় ঢেউ চলে এলে ডিসেম্বরের পরীক্ষার গড় ফলের ভিত্তিতে মূল্যায়ন হবে।

আরও পড়ুন: পুজোর আগেই কাটলো স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের জট, লোন পেতে রইল না কোনও বাধা

অন্যদিকে বিভিন্ন জেলায় ক্ষতিগ্রস্ত স্কুল মেরামতির জন্য ১০৯ কোটি টাকার প্রশাসনিক অনুমোদন দিয়েছেন রাজ্যপাল। লকডাউন ও আমফানে ক্ষতিগ্রস্ত স্কুলের সার্ভে করেছিল বিকাশ ভবন। তারপরেই জেলাশাসকদের চিঠি দেয় বিকাশ ভবন। করোনা আবহে দীর্ঘ দু’বছর বন্ধ ছিল স্কুল। স্কুল সারাতে কত টাকা লাগবে, সে ব্যাপারে জেলাশাসকদের খরচের তালিকা পাঠাতে বলল বিকাশ ভবন। সেই তালিকা হাতে পেয়ে গিয়েছে বিকাশ ভবন। এরপর পরবর্তী পদক্ষেপ করা হল।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *