নারদ মামলার নাটকীয় মোড়, মধ্যরাতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ সিবিআই

Mysepik Webdesk: সোমবার কলকাতা হাইকোর্টের পাঁচ বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চে নারদ মামলার শুনানি হওয়ার কথা। কিন্তু তার আগেই নারদ মামলাকে সুপ্রিম কোর্টে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করল সিবিআই। গতকাল মাঝরাতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হল সিবিআইয়ের আইনজীবীরা। অর্থাৎ কলকাতার হাইকোর্টের বৃহত্তর বেঞ্চে যে শুনানির কথা রয়েছে, সেই শুনানি স্থগিত রাখার আর্জি জানিয়েছেন সিবিআইয়ের আইনজীবীরা।

আরও পড়ুন: কলকাতায় ফের হানা ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের, উদ্বেগ

নারদ মামলায় কলকাতা হাইকোর্টে সোমবার যে শুনানি হওয়ার কথা ছিল, সেই শুনানি স্থগিতের আর্জি জানিয়েছে সিবিআই। এর ফলে সোমবার হাইকোর্টে যে শুনানি হওয়ার কথা ছিল, সেই শুনানি আদৌ হবে কিনা, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেল। প্রসঙ্গত, কলকাতা হাইকোর্টে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দল ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বেঞ্চে নারদ মামলার শুনানি চলছিল। শুনানি চলাকালীন ফিরহাদ, মদনদের জামিনের ক্ষেত্রে রাজেশ বিন্দল ও অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মধ্যে দ্বিমত দেখা দেয়। ফিরহাদ জামিনের পক্ষে ছিলেন বিচারপতি বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু জামিনে নারাজ ছিলেন বিচারপতি বিন্দল। কিন্তু দিনের শেষে ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র ও শোভন চট্টোপাধ্যায়কে জামিন দেওয়া না হলেও গৃহবন্দী রাখার পক্ষে রায় দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ফের বেলাগাম তৃণমূল সাংসদ, ‘রক্তচোষা’ রাজ্যপালকে জেলে পোরার হুঁশিয়ারি কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের

এরপরেই নারদ মামলার রায় দেওয়ার জন্য হাইকোর্টে পাঁচ বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চ গঠন করা হয়। সেই বেঞ্চে রয়েছেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দল, বিচারপতি ইন্দ্রপ্রসন্ন মুখোপাধ্যায়, বিচারপতি হরিশ টন্ডন, বিচারপতি সৌমেন সেন এবং বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন নারদ মামলার শুনানির কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হল সিবিআইয়ের আইনজীবীরা।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *