কথা রাখেনি সরকার, করোনা আবহে ৩ হাজার জুনিয়র ডাক্তারের পদত্যাগ

Mysepik Webdesk: কথা দিয়েও কথা রাখেনি সরকার, এই দাবিতে গত কয়েকদিন ধরেই মধ্যপ্রদেশে জুনিয়র ডাক্তাররা ধর্মঘট ডেকেছিলেন। তবে বৃহস্পতিবার হাই কোর্ট তাঁদের উদ্দেশ্যে জানায়, তাঁদের এই ধর্মঘট বেআইনি, ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই তাদের কাজে ফিরতে হবে, অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। হাইকোর্টের এই নির্দেশের পরেই একের পর এক জুনিয়র ডাক্তার পদত্যাগ করতে শুরু করে। তাঁরা জানিয়েছে, হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে তাঁরা সুপ্রিম কোর্টে যাবে। করোনা আবহে এই ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই কপালে চিন্তার ভাজ ফেলেছে বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশ সরকারের।

আরও পড়ুন: করোনাকালে বেতন নেননি মুকেশ আম্বানি

জানা গিয়েছে, ডাক্তারদের মূল দাবি ছিল, যেহেতু তাঁরা করোনা রোগীদের চিকিৎসা করেন, সেহেতু তাঁদের সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। তাঁদের থেকে আবার সংক্রমিত হতে পারে তাঁদের পরিবারও। সেই কারণে তাঁদের দাবি, সরকারের পক্ষ থেকে তাঁদের এবং তাঁদের পরিবারের জন্য বিনামূল্যে করোনা চিকিৎসা পরিষেবা দিতে হবে রাজ্য সরকারকে। পাশাপাশি জুনিয়র থাকাকালীন তাঁদের স্টাইপেন্ড বাড়াতে হবে ২৪ শতাংশ। ডাক্তাররা আরও জানিয়েছে, হাইকোর্ট যাই নির্দেশ দিক না কেন, তাঁদের দাবি না মানলে তাঁরা আন্দোলনের পথ থেকে সরবে না।

আরও পড়ুন: নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণে এসেছে: অমিত শাহ

যদিও করোনা আবহে চিকিৎসকদের এই আন্দোলনকে মোটেই ভাল চোখে দেখছে না শিবরাজ সিং চৌহানের সরকার। মধ্যপ্রদেশের মেডিক্যাল শিক্ষামন্ত্রী বিশ্বাস সারং জানিয়েছেন, জুনিয়র ডাক্তাররা যেভাবে দলবদ্ধভাবে পদত্যাগ করতে শুরু করেছে, তা অত্যন্ত নিন্দনীয় ঘটনা। করোনা আবহে তাঁরা তাঁদের দায়িত্ব এড়াতে পারে না। যদিও সংগঠনের তরফে দাবি করা হচ্ছে, অনেকদিন ধরেই সরকার তাঁদের দাবি মেনে নেওয়ার কথা বলেছে, কিন্তু এখনও পর্যন্ত তা ফলপ্রসূ হয়নি।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *