মাত্র চার মিনিটেই থমকে গেল রাজ্যপালের ভাষণ, বিধানসভা বাজেট অধিবেশন শুরুতেই তুমুল হট্টগোল

Mysepik Webdesk: বৃহস্পতিবার বিধানসভার সপ্তদশ বাজেট অধিবেশন হওয়ার কথা ছিল। সেইমতো বিধানসভার অধিবেশন এদিন দুপুর ২টো নাগাদ ভাষণ দিয়ে শুরু করার কথা ছিল রাজ্যপালের। কিন্তু তাঁর বক্তৃতা শুরু হতেই বিধানসভার ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করেন বিজেপি বিধায়করা। সম্পূর্ণ ভাষণ শেষ না করে মাত্র চার মিনিটের মাথায় তাঁকে তাঁর ভাষণ থামাতে হয়। সম্ভবত তিনি তাঁর সম্পূর্ণ ভাষণ শেষ করতে পারেননি। এরপরেই তাঁকে বিধানসভার কক্ষ ত্যাগ করতে দেখা যায়। তাঁকে প্রটোকল মেনে বিদায় জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন: টাটার সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে রাজ্যে দু’টি ক্যান্সার হাসপাতালের ঘোষণা করলেন মমতা

রাজ্যপালের সভাগৃহ ত্যাগ করার পর একে একে বিধানসভার কক্ষ ত্যাগ করেন বিজেপি বিধায়করা। মনে করা হচ্ছে, আজকের মতো মুলতুবি রইল বিধানসভা বাজেট অধিবেশন। এই প্রসঙ্গে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী বলেন, “বিধানসভার এই ঘটনার তীব্র বিরোধিতা করছি আমরা, কারণ, রাজ্যপালের ভাষণে রাজ্যে ভোট-পরবর্তী অশান্তির কোনও উল্লেখ নেই।”

আরও পড়ুন: রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগের মামলায় কমিশনকে ‘অপদার্থ’ আখ্যা দিল হাইকোর্ট

এদিন বিধানসভায় ডেপুটি স্পিকারের আসনে ছিলেন রামপুরহাটের তৃণমূল বিধায়ক আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়। যেহেতু বিজেপি আগেই জানিয়েছিলেন, ডেপুটি স্পিকারের আসন নিয়ে তারা কোনও বিরোধিতা করবে না, সেহেতু আজ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ডেপুটি স্পিকার নির্বাচিত হয়েছে। দেশজুড়ে করোনা পরিস্থিতির জেরে এদিন বিধায়কদের বসার আসনের ক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্বও বজায় রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি এবারের বিধানসভার অধিবেশনে বিধায়কদের দর্শক না আনার কথা বলা হয়েছে। সভাগৃহের মধ্যেই সাংবাদিকদের বসার জন্য আলাদা ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *