Latest News

Popular Posts

রাজ্যের পুরভোট পিছিয়ে দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে কমিশনকেই, নির্দেশ হাইকোর্টের

রাজ্যের পুরভোট পিছিয়ে দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে কমিশনকেই, নির্দেশ হাইকোর্টের

Mysepik Webdesk: বাংলার পুরভোট মামলার রায় দিলো কলকাতা হাইকোর্ট। শুক্রবার হাইকোর্টের পক্ষ থেকে জানানো হয়, করোনা পরিস্থিতির জন্য রাজ্যের বাকি চারটি পুরসভার ভোট ৪ থেকে ৬ সপ্তাহ পিছিয়ে দেওয়া যায় কিনা, সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে নির্বাচন কমিশনকে। সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য কমিশনকে ৪৮ ঘণ্টা সময়ও বেঁধে দিয়েছে হাইকোর্ট। কোর্টের বক্তব্য, যেহেতু ভোট পিছনো কিংবা নির্ধারিত দিনে ভোট করানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা শুধুমাত্র কমিশনের হাতেই রয়েছে, সেহেতু এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে নির্বাচন কমিশনকেই।

আরও পড়ুন: সাবধান! বুস্টার ডোজের নামে ফোন করে প্রতারণার জাল পাতছে দুষ্কৃতীরা

আগামী ২২ জানুয়ারি বিধাননগর, চন্দননগর, শিলিগুড়ি ও আসানসোল পুরসভায় ভোট। কিন্তু, রাজ্যের করোনা পরিস্থিতিতে ভোট করা হলে করোনা সংক্রমণ আরও বেশি ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সেই কারণেই রাজ্যের পুরসভা নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়ার আবেদন জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন সমাজকর্মী বিমল ভট্টাচার্য। মামলাকারীর পক্ষের আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। আদালতে তিনি দাবি করেন, ‘সাগরমেলার ক্ষেত্রে পুণ্যস্নানের নির্দিষ্ট দিন থাকলেও নির্বাচনের ক্ষেত্রে তেমনটা নেই।অপরদিকে, রাজ্য নির্বাচন কমিশনের আইনজীবী জিষ্ণু সাহার পালটা যুক্তি, রাজ্য সরকার এখনও সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করেনি। মানুষের যাতায়াতের উপরেও কোনও বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়নি। সেক্ষেত্রে নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়ার কোনও যুক্তি নেই।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন। https://www.facebook.com/mysepik

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *