বাড়ছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের প্রকোপ, উদ্বেগ বাড়ছে স্বাস্থ্য দপ্তরের

Mysepik Webdesk: করোনা আবহের মধ্যে এবার নতুন উপদ্রব দেখা দিয়েছে। নতুন উপদ্রবের নাম ব্ল্যাক ফাঙ্গাস, ইতিমধ্যেই যা স্বাস্থ্য দপ্তরের কপালে চিন্তার ভাজ ফেলেছে। ভারতে ইতিমধ্যেই ৭২৫০ জন আক্রান্ত হয়েছে এই রোগে। মৃত্যু হয়েছে ২১৯ জনের। করোনা আক্রান্ত হওয়ায় পরেই থাবা বসাচ্ছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা Mucormycosis। এখনও পর্যন্ত দেশের ১৩ টি রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের শরীরে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের অস্তিত্ব ধরা পড়েছে এবং আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকাটাই মূল চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

আরও পড়ুন: পদ্মশ্রী ডাঃ কে কে আগরওয়াল করোনায় মৃত্যুবরণ করার আগে বললেন ‘দ্য শো মাস্ট গো অন’

গত বৃহস্পতিবার ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে মহামারী হিসেবে ঘোষণা করার পাশাপাশি এই রোগের চিকিৎসার জন্য দিল্লির লোক নায়ক, জিটিবি ও গান্ধী হসপিটালকে তৈরি থাকার নির্দেশ দিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ভারতের স্বাস্থ্য দপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, মহারাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা দেখা গিয়েছে। ওই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫০০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৯০ জনের। এর পরেই রয়েছে গুজরাট। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ১১৬৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬১ জনের। মধ্যপ্রদেশে আক্রান্ত ৫৭৫ জন, মৃত্যু ৩১ জনের। দিল্লিতে ২০৩ জনের আক্রান্ত হওয়ার খবর এসেছে এবং মৃত্যু হয়েছে ১ জনের।

আরও পড়ুন: বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে আর্জি

এদিকে পশ্চিমবঙ্গেও গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৫ জনের শরীরে এই প্রাণঘাতী ছত্রাকের অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছে। করোনাভাইরাসের মতোই কীভাবে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের হাত থেকে নিজেকে বাঁচানো যায়, সেই সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা বা গাইড লাইন প্রকাশ করার প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। ইতিমধ্যেই এই সংক্রান্ত গাইডলাইন প্রকাশের জন্য বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক করেছে রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তর।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *