সূচ ফুটিয়ে কোলের শিশুকে হত্যা, ফাঁসির সাজা মা ও প্রেমিককে

Mysepik Webdesk: পুরুলিয়া সূচকাণ্ডে অবশেষে সাজা শোনাল পুরুলিয়া আদালতের ফাস্ট ট্র্যাক কোর্ট। প্রায় সাড়ে চার বছর পর মঙ্গলবার সেই খুনের সাজা ঘোষণা করল আদালত। প্রেমিকের সঙ্গে হাত মিলিয়ে নিজের সন্তানের দেহে সূচ ফুটিয়ে হত্যা করেছিল মা। এই ঘটনাকে বিরলতম আখ্যা দিয়ে এদিন পুরুলিয়া আদালতের ফাস্ট ট্র্যাক কোর্ট অভিযুক্ত মঙ্গলা গোস্বামী এবং তাঁর প্রেমিক সনাতন ঠাকুর দু’জনকেই ফাঁসির সাজা শোনায়।

আরও পড়ুন: সাংবাদিক বৈঠক করলেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী, কী জানালেন তিনি?

ঘটনার সূত্রপাত ২০১৭ সালে। ওই বছরের জুলাই মাসে প্রেমের পথের কাঁটা সরানোর জন্য নিজের তিন বছরের শিশুর শরীরে সাতটি সুচ ফুটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে মঙ্গলা গোস্বামীর বিরুদ্ধে। গুরুতর আহত অবস্থায় শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করে এক্সরে করলে দেখা যায়, তার নিম্নাংগে সাতটি সূচ ঢোকানো আছে। প্রথমে বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ ও পরে এসএসকেএম হাসপাতালে শিশুটিকে স্থান্তারিত করা হয়। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। ২১ জুলাই মর্মান্তিক মৃত্যু হয় শিশুকন্যাটির। পরের দিনই গ্রেফতার করা হয় শিশুর মা মঙ্গলা ও তার প্রেমিক সনাতন ঠাকুরকে।

আরও পড়ুন: সঞ্জীবনী পরিবারের উদ্যোগে মুর্শিদাবাদে রক্তদান শিবির

সেই সময় অভিযুক্তদের কোর্টে পেশ করা হলে বিচারক রমেশ কুমার প্রধান তাদের ৩০২, ১২০ বি এবং ৩৪ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করেন। এই ধরণের নৃশংস ঘটনা বিরলের মধ্যে বিরলতম আখ্যা দিয়ে অভিযুক্তদের চরমতম শাস্তি দাবি করেন সরকারী আইনজীবী আনোয়ার আলি আনসারী। সেই খুনের বিচার চলাকালীন মঙ্গলবার অবশেষে অভিযুক্তদের ফাঁসির সাজা শোনায় পুরুলিয়া আদালত।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *