১০ জানুয়ারি থেকে শুরু মুশতাক আলি ট্রফি, স্থগিত হতে পারে ঐতিহাসিক রঞ্জি ট্রফি

Mysepik Webdesk: শেষপর্যন্ত ঘরোয়া টুর্নামেন্ট শুরু করতে চলেছে বিসিসিআই। সৈয়দ মুশতাক আলি  টি-২০ ট্রফি ১০ ​​জানুয়ারি থেকে অনুষ্ঠিত হবে। গতমাসে, সচিব জয় শাহ ঘরোয়া টুর্নামেন্ট আয়োজন সংক্রান্ত বিষয়ে ৩৮টি অ্যাসোসিয়েশনকে একটি চিঠি লিখেছিলেন। বেশিরভাগ অ্যাসোসিয়েশন কেবল টি-টোয়েন্টি এবং ওয়ানডে টুর্নামেন্ট আয়োজনের পক্ষে ছিল। এমনকী মহিলা ক্রিকেট এবং জুনিয়র ক্রিকেট নিয়েও কেউ আলোচনা করেননি। তবে চলতি মরশুমে রঞ্জি ট্রফি হবে কিনা, সেই বিষয়ে বড় প্রশ্নচিহ্ন রয়েছে। ১৯৩৪ সাল থেকে চলা এই প্রথম শ্রেণির এই ঐতিহাসিক টুর্নামেন্ট প্রথমবারের জন্য স্থগিত করা হতে পারে। শোনা যাচ্ছে যে, স্টেট অ্যাসোসিয়েশনগুলিও এ-বিষয়ে আগ্রহী নয়।

আরও পড়ুন: শেষকৃত্য চলাকালীন পাওলো রোসির বাড়িতে ডাকাতি, শুরু তদন্ত

হরিয়ানা, হিমাচল ও উত্তরপ্রদেশের মতো রাজ্যগুলি কেবল মুশতাক আলি ট্রফির পক্ষে। অন্যদিকে, মুম্বই, সৌরাষ্ট্র ও তামিলনাড়ুর মতো রাজ্যগুলি টি-টোয়েন্টি দিয়ে শুরু করতে চায় এবং যদি সম্ভব হয় তাহলে তারা রঞ্জির পক্ষে সায় দেবে বলে খবর। কেবল কর্নাটকই তিনটি টুর্নামেন্টের পক্ষে। কর্নাটক অ্যাসোসিয়েশন বলেছে, ‘‘বোর্ড প্রথমে টি-২০, তারপরে রঞ্জি এবং এরপরে বিজয় হাজারে ওয়ানডে ট্রফি করাক। মহিলা ও পুরুষ বিভাগ ছাড়াও জুনিয়র গ্রুপেরও সমস্ত ইভেন্ট করাক বোর্ড।”

আরও পড়ুন: অমল আলোয় ফুটবলার অমল গুপ্ত: কিছু স্মৃতি, কিছু কথা

ভারতের প্রাক্তন উইকেটরক্ষক কিরণ মোরে বলেন, ‘‘স্থানীয় ক্রিকেটারদের জন্য ক্রিকেটের প্রত্যাবর্তন হওয়া জরুরি। যা তাদের জন্য আর্থিকভাবে প্রয়োজনীয়। মুশতাক আলির ট্রফির মাধ্যমে ইভেন্ট শুরু হবে। ক্রিকেটাররা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ইংল্যান্ডের ভারত সফরের আগে খেলোয়াড়দের পক্ষে তাদের দক্ষতা দেখানোর জন্য এটি একটি ভালো সুযোগ। এই সিরিজটি খুব গুরুত্বপূর্ণ।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *