বদলে যেতে পারে মধ্যপ্রদেশের হবিবগঞ্জ স্টেশনের নাম

Mysepik Webdesk: আগেই বিজেপি মধ্যপ্রদেশের হবিবগঞ্জ স্টেশনের নাম বদলে ফেলার দাবি তুলেছিল। দাবি তুলেছিলেন ভোপালের সাংসদ সাধ্বী প্রজ্ঞা-‌সহ একাধিক বিজেপি নেতা। সেইমতো শীঘ্রই বদলে যেতে পারে দেশের সর্বপ্রথম আন্তর্জাতিক মানের রেল স্টেশনের নাম। সম্প্রতি নতুনরূপে প্রকাশ পাওয়া স্টেশনটি উদ্বোধন করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁর উদ্বোধনের আগেই স্টেশনটির নাম পরিবর্তন করার প্রস্তাব দিল মধ্যপ্রদেশ সরকার।

আরও পড়ুন: ‘স্পেশাল’ তকমা উঠছে ট্রেনের, ভাড়াও কমবে: রেলমন্ত্রী

হবিবগঞ্জ স্টেশনটির নতুন নামকরণ করা হতে পারে রানী কমলাপতির নামে। মধ্যপ্রদেশে শিবরাজ সিং চৌহানের সরকার ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে এই বিষয়ে একটি লিখিত প্রস্তাব পাঠিয়েছে। সম্প্রতি পিপিপি মডেলে প্রায় ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে হবিবগঞ্জ নতুন টার্মিনাল তৈরি করা হয়েছে। স্টেশনটিতে বিশেষ ভাবে সক্ষম মানুষদের যাতায়াতের জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা করার পাশাপাশি ৮টি লিফট এবং ১২টি এক্সলেটর লাগানো হয়েছে। এছাড়াও স্টিয়ারিং রুম, ডরমেটরি, পুরুষ ও মহিলাদের জন্য পৃথক লাউঞ্জ, ভিআইপি লাউঞ্জ ইত্যাদি তৈরি করা হয়েছে স্টেশনের ভেতরে।

আরও পড়ুন: বায়ুদূষণ নিয়ে হুঁশ নেই প্রতিবেশী রাজ্যগুলির, ‘বিষাক্ত’ বাতাসেই দিন গুজরান দিল্লিবাসীর

স্টেশনটি তৈরি হওয়ার পর একেবারে প্রথমের দিকে নাম রাখা হয়েছিল শাহপুর। পরে হবিব মিঞা স্টেশনটিকে আরও সম্প্রসারণ করার জন্য নিজের জমি দান করেছিলেন। ১৯৭৯ সালের পর থেকে তাঁর নামানুসারে স্টেশনটির নাম রাখা হয় হবিবগঞ্জ স্টেশন। এবার সেই স্টেশনটির নাম পরিবর্তনের দাবি উঠল গোণ্ড রানী কমলাপতির নামে করার।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *