উত্তরপ্রদেশের পর তেলেঙ্গানা, শারীরিক সম্পর্কে বাধা দেওয়ায় কিশোরীর শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দিল মালিক

Rape Case

Mysepik Webdesk: উত্তরপ্রদেশের গণধর্ষণের ঘটনার পর ফের নারী নির্যাতনের ঘটনা প্রকাশ্যে এল। কিশোরীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করার জন্য চাপ দিচ্ছিল মালিক। কিন্তু কিশোরী রাজি না হওয়ায় তার গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দিলেন সেই ব্যক্তি। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে তেলঙ্গানার খাম্মাম শহরে। পুলিশ জানিয়েছে, ১৩ বছরের ওই কিশোরীর ওপর অমানবিক অত্যাচারের পর তার গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয় তার মালিক।

আরও পড়ুন: ‘হাতরাসের ঘটনা বীভৎস’, মন্তব্য শীর্ষ আদালতের

জানা গিয়েছে, ২৬ বছর বয়সি অভিযুক্তের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী রয়েছে। অন্যদিকে নির্যাতিতা আবার দলিত সম্প্রদায়ের। যদিও ঘটনাটি ঘটেছে গত ১৮ সেপ্টেম্বর। কিন্তু ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসে সোমবার। পুলিশ জানতে পারে কোনও রকম এফআইআর ছাড়াই ওই কিশোরী একটানা ২০ দিন ধরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার শরীরের ৭০ শতাংশ পুড়ে ঝলসে গিয়েছে। যতদূর জানা গিয়েছে, ওই তরুণীকে তার মালিকই হাসপাতালে ভর্তি করছে।

আরও পড়ুন: যাত্রী নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে এবার লোকাল ট্রেনের কামরায় বসছে সিসিটিভি

এই ঘটনায় কিশোরীর মালিক ওই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করছে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টা ও খুনের চেষ্টার অপরাধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয়, ওই কিশোরীর সঙ্গে এতবড় একটা ঘটনা ঘটে গেছে, অথচ কিশোরীর বাড়ির লোক কিছুই জানে না। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে ওই কিশোরীর বাড়ির লোকেদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের সব কথা জানানো হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে,বর্তমানে ওই কিশোরীর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *