শুধুমাত্র টাকার লোভে বিলুপ্তপ্রায় পাখি শিকারের অনুমতি দিল পাকিস্তান সরকার

Mysepik Webdesk: বিপন্ন প্রজাতির প্রাণীর অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে যেখানে গোটা বিশ্ব ক্রমাগত চেষ্টা করে যাচ্ছে, সেখানে ঠিক উল্টো রাস্তায় হাঁটলো পাকিস্তান। সম্প্রতি মোটা টাকার বিনিময়ে কাতারের শেখ পরিবারকে একটি বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির পাখি হাওবারা বুস্টার্ড (houbara bustard) শিকার করার অনুমতি দিয়েছে ইমরান খানের সরকার। কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানি এবং তাঁর পরিবারের ১৪ জন সদস্যকে এই পাখি শিকারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আর এই ঘটনা নিয়ে ইতিমধ্যেই বিশ্বজুড়ে প্রবল সমালোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে পাক সরকারকে নিয়ে।

আরও পড়ুন: বাংলাদেশে নিজের জন্মভিটেয় ভেঙে ফেলা হল বিপ্লবী বাঘাযতীনের মূর্তি

The Asian Houbara Bustard - Stratagem

আইইউসিএন এর তালিকা অনুযায়ী হাওবারা বুস্টার্ড পাখিটি বিপন্ন প্রজাতির পাখির তালিকায় রয়েছে। এই ধরণের পাখি বর্তমানে আর খুব একটা দেখা যায় না। তাই এই ধরণের পাখিকে বিলুপ্ত হওয়ার হাত থেকে বাঁচাতে উঠেপড়ে লেগেছে বিশ্বের একাধিক দেশ। এই পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের এই সিদ্ধান্তে স্বাভাবিকভাবেই বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, বিলুপ্তপ্রায় পাখি শিকারের অনুমতি দেওয়া আসলে প্রবল অর্থনৈতিকভাবে ধুঁকতে থাকা পাকিস্তানের তেল সমৃদ্ধ কাতারের গুডবুকে থাকাই হল আসল উদ্দেশ্য।

আরও পড়ুন: সাংবাদিক ড্যানিয়েল পার্ল হত্যা মামলায় নয়া মোড়, সিন্ধ হাইকোর্টের বিরুদ্ধে প্রমাণ উপেক্ষার অভিযোগ

Hunting the houbara - Why Pakistan lets Arab bigwigs set falcons on rare  birds | Asia | The Economist

হাওরাবা বুস্টার্ড প্রজাতির পাখি সাধারণত শুকনো জলবায়ুতে বসবাস করে। এই পাখি সাধারণ ভাবে দুটি প্রজাতিতে দেখতে পাওয়া যায়। একটি উত্তর আফ্রিকার (ক্ল্যামাইডোটিস আনডুলাটা) এবং অন্যটি এশিয়ায়। কয়েকবছর আগে পর্যন্ত পাকিস্তান, আরব-সহ মধ্য এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশে এশীয় প্রজাতির হাওবারা বুস্টার্ড পাখির দেখা পাওয়া যেত। তবে বর্তমানে এই প্রজাতির পাখির দেখা পাওয়া যায় না। আর শুধুমাত্র রাজনৈতিক ফায়দার কারণে ইমরান সরকারের এই ধরণের সিদ্ধান্তে রীতিমতো উদ্বিগ্ন পরিবেশপ্রেমীরা।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *