প্রবল বৃষ্টির জেরে অবস্থান পরিবর্তন করার সম্ভাবনা হিমালয়ের, চাঞ্চল্যকর তথ্য গবেষণায়

Mysepik Webdesk: আগেই বিজ্ঞানীরা জানিয়েছিলেন, হিমালয়ের উচ্চতা কমছে। শুধু তাই নয়, একটু একটু করে সরেও যাচ্ছে পর্বতমালা। এবার তার কারণ হিসেবে প্রবল বৃষ্টিকেই দায়ী করলেন তাঁরা। নেপাল ও ভুটানজুড়ে বিস্তৃত হিমালয়ের বিস্তীর্ণ অংশের ভূমিক্ষয়ের ধরণ দেখে তাঁদের দাবি, প্রবল বৃষ্টির ফলেই একটু একটু করে সরে যাচ্ছে পর্বতমালা। এরকমই একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে একটি বিখ্যাত আন্তর্জাতিক পত্রিকা ‘সায়েন্স অ্যাডভান্সেস’-এ।

আরও পড়ুন: মা ইলিশ রক্ষার অভিযানে গ্রেফতার ১৭৮ মৎস্যজীবী, বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ৯ কোটি টাকার জাল

কিছুদিন ধরে অ্যারিজোনা স্টেট ইউনিভার্সিটি এবং লুইজিয়ানা স্টেট ইউনিভার্সিটির সঙ্গে জোট বেঁধে ইংল্যান্ডের ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক হিমালয়ের ভূমিক্ষয়ের ওপর একটি গবেষণা করছিলেন। মূলত তাঁরা হিমালয় পর্বতমালার প্লেট টেকটনিক সরণের উপর আবহাওয়া পরিবর্তনের প্রভাব নিয়ে গবেষণা করছিলেন। গবেষণার জন্য তাঁরা নেপাল ও ভুটানের মধ্য ও পূর্বাঞ্চলকেই বেছে নিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন: বিশ্বের ক্ষুধা সূচকে পাকিস্তান, বাংলাদেশের পরে রয়েছে ভারতের নাম, চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট

গবেষকদলের প্রধান ডক্টর বাইরন অ্যাডামস জানান, নেপাল ও ভুটানের পার্বত্য এলাকার ভূমিক্ষয়ের প্রকারভেদ দেখে তাঁরা তাঁদের ল্যাবে একই ধরণের একটি মডেল নির্মাণ করেন। আর ওই মডেলের ওপরেই তাঁরা যাবতীয় পরীক্ষা নিরীক্ষা করেন। এক্ষেত্রে তাঁরা গাণিতিক পদ্ধতি ব্যবহার করেন। অনেক কষে তাঁরা এই ধারণায় পৌঁছেছেন, সমতলীয় অংশের তুলনায় পার্বত্য অংশের মাটির ক্ষয় তুলনামূলক বেশি। আর সেটাই পর্বতমালা সরে যাওয়ার অন্যতম প্রধান কারণ। তবে এই তত্ত্ব শুধুমাত্র হিমালয় নয়, পাহাড়ি খাদ, উপত্যকা তৈরি, নদীর গতিপথ বদল, এসবকিছুর ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *