কোভ্যাক্সিনের তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালের ফলাফলে শিলমোহর DCGI-এর

Mysepik Webdesk: করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য ভারতে জরুরি পর্যায়ে অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল ভারত বায়োটেকের (Bharat Biotech) তৈরি কোভ্যাক্সিন (Covaxin) টিকাকে। তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালের জন্য ২৫ হাজার ৮০০ জনের উপর প্রয়োগ করা হয়েছিল এই টিকা। মঙ্গলবার ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া (DCGI) শিলমোহর দিয়েছে এই ভ্যাক্সিনটিকে। জানা গিয়েছে, করোনার বিরুদ্ধে লড়তে এই ভ্যাক্সিনটি ৭৭.৮ শতাংশ কার্যকরী। যদিও এখনও পর্যন্ত ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার তরফে এই সম্পর্কে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনও ঘোষণা করা হয়নি।

আরও পড়ুন: দেশের তিন রাজ্যে মিলল করোনার ‘ডেল্টা প্লাস’ ভ্যারিয়্যান্ট, তৃতীয় ঢেউয়ের অশনিসংকেত?

গত সপ্তাহের শেষে এই ট্রায়ালের তথ্য দেওয়া হয়েছিল DCGI এর কাছে। প্রথম অন্তবর্তী ট্রায়ালের ফলাফল পেশ করা হয়েছিল মার্চ মাসে। সেই ট্রায়ালের সময় দেখা যায়, এই টিকাটি করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ৮১ শতাংশ কার্যকরী এবং এই টিকার দু’টি ডোজ নেওয়ার পর হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সম্ভাবনা ১০০ শতাংশ থাকে না। ভারত বায়োটেক জানিয়েছে, সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে সম্ভবত কোভ্যাকসিন WHO-র অনুমোদন পেয়ে যাবে।

আরও পড়ুন: ত্রিপুরার অন্তত ১৫ হাজার বিজেপি কর্মী তৃণমূলে যোগদানের অপেক্ষায়!

এদিকে দেশে ধীরে ধীরে কমছে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। গত এপ্রিল, মে মাস নাগাদ যেখানে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা চার লক্ষেরও বেশি ছিল, সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা কমে ৫০ হাজারেরও নিচে পৌঁছে গিয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য দপ্তরের রিপোর্ট অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪২ হাজার ৬৪০ জন। এর ফলে দেশজুড়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি 99 লক্ষ ৭৭ হাজার ৮৬১ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ১৬৭ জনের। এই নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লক্ষ ৮৯ হাজার ৩০২ জন। এছাড়াও গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮১ হাজার ৮৩৯ জন। মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ কোটি ৮৯ লক্ষ ২৬ হাজার ৩৮ জন। এই মুহূর্তে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৬ লক্ষ ৬২ হাজার ৫২১ জন। এখনও পর্যন্ত মোট টিকাকরণ হয়েছে ২৮ কোটি ৮৭ লক্ষ ৬৬ হাজার ২০১ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে টিকা পেয়েছেন ৮৬ লক্ষ ১৬ হাজার ৩৭৩ জন, যা দৈনিক টিকাকরণের সংখ্যার নিরিখে এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *