শেষকৃত্য চলাকালীন পাওলো রোসির বাড়িতে ডাকাতি, শুরু তদন্ত

Mysepik Webdesk: ইতালির বিশ্বকাপজয়ী ফুটবলার পাওলো রোসির শেষকৃত্যে তাঁর দলের খেলোয়াড়রা শেষকৃত্যে অংশ নিয়েছিলেন। ১৯৮২ ফিফা বিশ্বকাপে ইতালিকে চ্যাম্পিয়ন করানোর মূল কাণ্ডারি রোসি বুধবার ৬৪ বছর বয়সে দেহত্যাগ করেন। করোনার বিধিনিষেধের কারণে কেবলমাত্র ৩০০ জনকে সেখানে উপস্থিত হতে দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু যখন তাঁর মৃতদেহ স্ট্যাডিও মেন্টি (ভিসেনজার ফুটবল স্টেডিয়াম)-তে রাখা হয়েছিল, তখন হাজার হাজার মানুষ তাঁর শেষ সফরের জন্য জমায়েত হয়েছিলেন।

আরও পড়ুন: চিকিৎসায় অবহেলায় মৃত্যু মারাদোনার? পুলিশি জেরায় মনোবিদ

ইতালির ‘গাজেত্তা’ পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে, রোসির ছেলে আলেসান্দ্রো এবং তাঁর বিশ্বকাপজয়ী সতীর্থ মার্কো টেরডেলি এবং আন্তোনিও ক্যাব্রিনি তাঁর কফিনটি তুলেছিলেন। ’৮২ বিশ্বকাপের জার্সি কফিনের উপরে রাখা হয়েছিল। ক্যাব্রিনি বলেন, “আমি কেবল আমার দলের সদস্যকেই হারাইনি, আমি আমার বন্ধু এবং ভাইকে হারিয়েছি।”

আরও পড়ুন: ধর্ষণের অভিযোগে রবিনহোর ৯ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ বহাল

রোসির সম্মানে, খেলোয়াড়রা শীর্ষস্থানীয় দেশীয় লিগ সিরি (এ)-র ম্যাচগুলিতে এক মিনিটের নীরবতা পালন করবেন এবং তাঁদের হাতে একটি কালো বার নিয়ে খেলবে। ১৯৮০ সালে সাসপেনশন থেকে ফিরে আসার পরে রসি দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছিলেন এবং ১৯৮২ সালে তাঁর দলকে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন করতে মূল ভূমিকা পালন করেছিলেন। ভেনিস থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরে ভিসেনজায় সমাধিস্থ করা হয় বিশ্বফুটবলের নয়নের মণি পাওলো রোসিকে।

আরও পড়ুন: অমল আলোয় ফুটবলার অমল গুপ্ত: কিছু স্মৃতি, কিছু কথা

তবে দুঃখের বিষয় হল, এহেন কিংবদন্তি ফুটবলারের শেষকৃত্য চলছিল যখন, তখনই তাঁর ফ্লোরেন্সের দক্ষিণ পূর্বে টাসকানির পোজ্জিও সেনিনার বাড়িতে হয়ে গেল ডাকাতি। ফলত তাঁর বাড়ি থেকে চুরি যায় বহু মূল্যবান জিনিসপত্র। পরে তাঁর স্ত্রী ফেডেরিকা ক্যাপেলেত্তি বাড়ি ফিরে দেখেন বাড়ির দরজা ভাঙা। ঘটনার অভিযোগে পুলিশে নালিশ জানানো হয়েছে। শুরু হয়েছে তদন্ত।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *