বাড়িতে গ্যাস ডেলিভারির ক্ষেত্রে নিয়মের পরিবর্তন হতে চলেছে, আগেভাগে জেনে নিন

Mysepik Webdesk: বর্তমানে গ্যাস বন্টনের ক্ষেত্রে কালোবাজারি রুখতে মোবাইল নম্বর থেকে মিসড কলের মাধ্যমে গ্যাস বুক করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবুও কিছু কিছু ক্ষেত্রে এখনও সম্পূর্ণ কালোবাজারি আটকানো যায়নি। তবে এবার কেন্দ্রীয় সরকার নয়া ব্যবস্থা চালু করতে চলেছে। ইতিমধ্যেই তার প্রাথমিক প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। নতুন নিয়ম অনুসারে, এবার থেকে প্রত্যেক গ্যাস ডিস্টিবিউটরের কাছে প্রত্যেক গ্রাহকের আপ-টু-ডেট তথ্য থাকা বাধ্যতামূলক। এই তথ্য না থাকলে বাড়িতে সিলিন্ডার পৌঁছনো বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

আরও পড়ুন: ফের ভারতে শুরু হতে চলেছে রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিন স্পুটনিকের ট্রায়াল

গ‍্যাস সিলিন্ডার বণ্টন ব্যবস্থায় আরও স্বচ্ছ্বতা আনতে পরীক্ষামূলকভাবে এই নয়া ব্যবস্থা প্রথম জয়পুরে চালু হয়েছে। তেল সংস্থাগুলোর দাবি, এই ব্যবস্থায় দারুন সাড়া পাওয়া গিয়েছে। পরবর্তী পর্যায়ে আগামী ১ নভেম্বর থেকে এই ব্যবস্থা ধাপে ধাপে ১০০টি স্মার্ট শহরে চালু হয়ে যাবে। এক্ষেত্রে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে গ্যাসের ডিলারদের কাছে গ্রাহকদের যে ঠিকানা এবং ফোন নম্বর নথিভুক্ত আছে, তা গ্রাহকদের একবার যাচাই করে নেওয়া প্রয়োজন। তবে এই ব্যবস্থা শুধুমাত্রই বাড়ির গ্যাসের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হবে।

আরও পড়ুন: পিকআপ গাড়ির সঙ্গে বাসের সংঘর্ষে মৃত ৭, আহত ৩২

এক্ষেত্রে নতুন ব্যবস্থায় যদি গ্যাস ডিস্টিবিউটারের কাছে আপনার মোবাইল নম্বর বা ঠিকানা আপডেট না করে থাকে, সেক্ষেত্রে গ্যাস সিলিন্ডার বুকিং করার পর ডেলিভারি বয়ের মোবাইলে থাকা অ্যাপের মাধ্যমে নাম ঠিকানা আপডেট করা যাবে বলে জানিয়েছে তেল কোম্পানিগুলি। নতুন এই ব্যাবস্থার নাম দেওয়া হয়েছে ডেলিভারি অথেনটিকেশন কোড (DAC)। এই ব্যবস্থায় গ্রাহকের রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরে একটি কোড যাবে। বাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডার ডেলিভারির জন্য এলে গ্রাহককে তেল কোম্পানির পাঠানো সেই অথেনটিকেশন কোর্ড (OTP) তাঁকে জানাতে হবে। এই কোড দু’টি মিললেই তবে গ্যাস সিলিন্ডার ডেলিভারি করা হবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *